Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

বিদ্যুৎ অফিস কে না জানিয়ে মিটার স্থানান্তর থানায় মামলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসকে না জানিয়ে মিটারের সিল কেটে স্থানান্তর করার ঘটনায় জাহাঙ্গীর নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম জহুরুল ইসলাম। মামলার আসামী জাহাঙ্গীরের বাড়ি উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়ন ইউপির মাদারিপুর গ্রামে। সে জয়মতুল্লাহর পুত্র। চলতি বছরের মার্চ মাসের ২৪ তারিখে  মামলা দায়ের হলেও রহস্য জনক কারনে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করে উল্টো গ্রাহককে মিমাংসা করার নির্দেশ দেন মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্তা এসআই মজিবুর বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে করে দুই গ্রাহক চরম বেকায়দায় পড়েছেন। ফলে দ্রুত সময়ের মধ্যে মামলার আসামীকে গ্রেফতারের জোর দাবি তুলেছেন ভুক্তভোগী দুই গ্রাহকসহ ডিজিএম।

এজহারে উল্লেখ,  রাজশাহী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্যাডে ১৯৬ নম্বর স্বারকের প্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, জাহাঙ্গীর পিতা জয়মতুল্লাহ সাং মাদারিপুর, উক্ত ব্যক্তি তানোর জোনাল অফিসের আওতাধীন বিভিন্ন এলাকায় অর্থের বিনিময়ে অবৈধ ভাবে বৈদ্যুতিক মিটার এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তর করে দিচ্ছেন। যেমন হিসাব নম্বর ৪৬৪-২৬২০ গ্রাহকের নাম আব্দুর রশিদ পিতা বদের আলী ও হিসাব নম্বর  ৪৬৪-২৬৫০ গ্রাহক বদের আলী পিতা মাশি উভয়ের গ্রাম, ধানোরা। এদুজন গ্রাহকের আবাসিক মিটার অফিস কে অবহিত না করে অবৈধ ভাবে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তর করে দিয়েছেন। যা বিদ্যুৎ আইন ২০১৮ অনুযায়ী কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ব্যতিত বৈদ্যুতিক স্থাপনা/ইক্যুইপমেন্টে দন্ডনীয় অপরাধ।  

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কামারগাঁ ইউপির ধানোরা গ্রামের রশিদ ও তার পিতা বদের আলীর ঘর ওয়ারিং শেষে মিটারের সিল কেটে অন্যত্র স্থানান্তর করেন জাহাঙ্গীর। বিদ্যুৎ বিল দেয়ার জন্য মিটার রিডার এসে এঅবস্থা দেখে গ্রাহককে জিজ্ঞেস করেন কে করেছে মিটারের এঅবস্থা। গ্রাহকরা বলেন জাহাঙ্গীর। মিটার রিডার বিষয়টি পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের কর্তৃপক্ষ কে অবহিত করেন। বিষয়টি জানার পর ডিজিএম ওই দুজন গ্রাহককে অফিসে তলব করেন এবং মিটারের সিল কাটার বিষয়টি ডিজিএমকে খুলে বলেন। এসময় দুজন গ্রাহকক লিখিত অভিযোগ দেন ডিজিএম বরাবর। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ডিজিএম থানায় এজহার দায়ের  বা মামলা করেন জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে।
এছাড়াও জাহাঙ্গীরের ছোট ভাই তানোর পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ইলেক্ট্রিশিয়ান  লিটন অধিক টাকার বিনিময়ে এবং কর্তৃপক্ষের নাম করে আর্থিক সুবিধা নিয়ে বিদ্যুৎ লাইন পাইয়ে দিতেন। ঘটনা বুঝতে পেরে এবং টাকার বিষয়টি প্রমান পাওয়ায় তাকে পল্লী বিদ্যুৎ তানোর জোনাল অফিস থেকে বহিষ্কার করেন । লিটন এখনো বহিষ্কার অবস্থায় আছেন। সে সুযোগ কাজে লাগিয়ে তার বড় ভাই একই কায়দায় বৈদ্যুতিক মিটার টাকার বিনিময়ে স্থানান্তর করে থাকেন।

মামলার তদন্ত কারী এসআই মজিবুরের মোবাইলে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তিনি রিসিভ করেন নি। থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম বলেন, মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্তা কে বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

আরও খবর



৩ নম্বর সংকেত জারি সমুদ্র বন্দরে

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আবহাওয়া অধিদপ্তর দেশের চারটি সমুদ্র বন্দরে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে।বুধবার (১৯ জুন) আবহাওয়ার এক সতর্কবার্তায় সংস্থাটি এ সতর্কবার্তা জারি করে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের সতর্কবার্তায় জানানো হয়, সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এ কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এছাড়া উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এদিকে সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে দেশের চারটি বিভাগে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সেইসঙ্গে দুই বিভাগে ভারী বৃষ্টির কারণে ভূমিধসের শঙ্কার কথাও জানানো হয়েছে।


আরও খবর



রোহিঙ্গা ক্যাম্প আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীদের হাব হয়ে যেতে পারে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৫০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠীর হাব তৈরি হতে পারে। মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের নিয়ে আগে থেকে করা আশঙ্কার কিছু কিছু আলামত দেখা যাচ্ছে।

শুক্রবার (৩১ মে) দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবিরের ১৯ নম্বর ক্যাম্প পরিদর্শন ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বিলম্ব হওয়ায় ক্যাম্পে অস্থিরতা রয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, এখানে অস্ত্র মজুত, আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসীদের হাব, অস্ত্রের ঝনঝনানি হয়ে যেতে পারে। অনেক কিছুই হতে পারে। সেই হতে পারার মধ্যে কিছু কিছু আলামত আমরা দেখছি। এখানে গুটিকয়েক লোক যারা মিয়ানমারে যুদ্ধ করছে, নানা কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে, তাদেরও আনাগোনা দেখছি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সবচেয়ে ভয়ের ব্যাপার হলো, যেটাকে আমরা সব সময় ভয় পেয়ে আসছি। আমাদের দেশে কোনো ড্রাগ তৈরি হচ্ছে না। সেখান (মিয়ানমার) থেকে ড্রাগ আসছে। ক্যাম্পের কিছুসংখ্যক লোক এর সঙ্গে জড়িত। আমরা তাদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছি। যারা ক্যাম্পে অস্ত্র নিয়ে ঘোরাফেরা করে, রক্তপাতে জড়িত তাদের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সবাই কাজ করছে।

রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত নেওয়ার বিষয়ে মিয়ানমার সহযোগিতা করছে না জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত হয়েছে, সবকিছু ছেড়ে এসেছে। এতে তাদের ভবিষ্যৎ কী সেটি তাদের কাছে অদৃশ্য। তাই আমরা অনেক আগে থেকেই বলছিলাম, তাদের পাঠিয়ে দিতে। এ ক্ষেত্রে মিয়ানমার সমন্বিতভাবে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে চুক্তি করেছে, কিন্তু চুক্তি পর্যন্তই শেষ। কোনো কাজ হয়নি।

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে নিজেদের মধ্যে নানা ঝামেলা আছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান খান বলেন, ২০১৭ সালের পরপরই রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। আমরা মনে করি, তাদের (রোহিঙ্গাদের) ফেরত নেবে। তা যত দ্রুত হয়, তা আমাদের জন্য মঙ্গল।

বেলা ১১টায় উখিয়ার ১৯ নম্বর ঘোনার পাড়া ক্যাম্পে এপিবিএনের সঙ্গে মতবিনিময় করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে সোয়া ১২টায় ক্যাম্পটির এ-৭ ব্লকের পাহাড়ি এলাকা পরিদর্শন করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজার শহরের হিলটপ সার্কিট হাউসে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আইনশৃঙ্খলা–সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।


আরও খবর



সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের ৪১তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী উৎযাপন

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image

সুন্দরগঞ্জ,(গাইবান্ধার)প্রতিনিধিঃপালিত হল সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের ৪১ তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী।প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের অ-স্হায়ী কার্যালয়ে প্রেসক্লাবের সভাপতি মোশার্রফ হোসেন বুলুর সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্হিত ছিলেন,সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি)মাসুদুর রহমান,সভায় বক্তব্য রাখেন,প্রেসক্লাবের সিঃসহ-সভাপতি  একেএম শামছুল হক,সাধারণ সম্পাদক,শফিকুল ইসলাম(অবুঝ),,যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম,এনামুল হক,প্রচার সম্পাদক মোকছেদ আল মামুন,দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান,শিক্ষা বিষায়ক সম্পাদক,জাহিদ হাসান জীবন, ক্রীড়া বিষয়ক যয়ন্ত শাহা জতন, কায্যকরি সদস্য হারুন-অর-রশিদ রাজু, খাইরুল ইসলাম নয়ন,প্রমুখ।


আরও খবর



আমতলীতে এনএসএস ও ওয়ার্ল্ড ভিশনের ত্রান বিতরন

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

আব্দুল্লাহ আল নোমান,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:আমতলীতে রিমালের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মধ্যে বুধবার বিকেলে উপজেলার আরপাঙ্গাশিয়া, আমতলী সদর ইউনিয়ন ও পৌরসভা ও হলদিয়া ইউনিয়নের ১৫শ’ পরিবারের মাঝে এনএসএস ও ওয়ার্ল্ড ভিশন শুকনো খাবার চিরা, চিনি ও বিস্কুট বিতরন করে। 

বুধবার বিকেলে আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরে খাদ্য সহায়তা বিতরনের উদ্বোধন করেন আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আশরাফুল আলম। সভায় সভাপত্বি করেন আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেলী পারভীন মালা। সভায় বক্তব্য রাখেন আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারেক হাসান, ওয়ার্ল্ড ভিশন আমতলী এপির ম্যানেজার সুরভী বিশ্বাসী ও এনএসএস এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার মৃদুল সরকার, ইউপি সদস্য কালাম রোজিনা আক্তার, আয়সা আক্তার, আব্দুল লতিফ প্রমুখ।

ঘোপখালী গ্রামের রাজ্জাক বলেন, বইন্যার পর এনএসএস ওয়ার্ল্ড ভিশন মোগো ত্রান দিয়া ব্যামালা হুগার করছে।

বালিয়াতলী গ্রামের হেনা বেগম বলেন, এনএসএস ওয়ার্ল্ড ভিশন মোগো এই খারাপ সময় ত্রান দিয়া জীবনডা বাচাইছে। আল্লায় যেন হেগো অনেক ভালো রাহে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, রিমালের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এনএএসএস ও ওয়ার্ল্ড ভিশন ত্রান বিতরন করে  দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। আমি আশা করি সকল এনজিও ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য এগিয়ে আসবে। 


আরও খবর



মালবাহী ট্রাক দোকানে ঢুকে পড়ায় প্রাণ গেল দু’জনের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৩জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরের মণিরামপুরে মালবাহী ট্রাকের চাপায় দু’জন নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় ট্রাক চালক আহত হয়েছে। সোমবার (১০ জুন) সকালে মণিরামপুর বাধাঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।নিহতরা হল, মণিরামপুুরের বিজয়রামপুর গ্রামের মৃত আনার আলীর ছেলে আব্দুর রহমান (৮৫) ও টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলার দেওভাটা গ্রামের ঝন্টু মিয়া (৪৮)। আহত ট্রাক চালকের নাম নুরুল ইসলাম। তিনি গাজীপুর থানার উত্তর দাড়িয়াপুর গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার রাতে একটি মালবাহী ট্রাক গাজীপুর থেকে শ্যামনগরের উদ্দ্যেশে রওনা হয়। সকালে ট্রাকটি মণিরামপুর বাধাঘাট এলাকায় পৌছালে চলন্ত অবস্থায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি দোকানের ভেতরে ঢুকে পড়ে।এসময় দোকানের সামনে বসে থাকা আব্দুর রহমান ট্রাকে চাপা পড়ে মারা যান। আর গাড়িতে থাকা ট্রাক মালিক ঝান্টু মিয়াও ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় ট্রাক চালক নুরুল ইসলাম গুরুত্বর আহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে হতাহতদের উদ্ধার করে।প্রত্যক্ষদর্শী রফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ব্যাপারী অটো রাইস মিলের সামনে দোকানে বসে থাকা আব্দুর রহমানকে চাপা দিয়ে ট্রাকটি দোকানে ঢুকে পড়ে। এসময় ঘটনাস্থলে তিনি মারা যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে ট্রাকের মধ্যে থেকে অপর একজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।

চালক নুরুল ইসলাম বলেন, গাজীপুর থেকে শ্যামনগরের যাওয়ার পথে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ঝন্টু মিয়া ওই ট্রাকের মালিক।মণিরামপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার সাফায়াত হোসেন বলেন, ট্রাক দুর্ঘটনায় তিন জন হতাহত হয়েছে। এদের মধ্যে ট্রাক চালক নুরুল ইসলামকে উদ্ধার করে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মণিরামপুুর থানার এসআই লিটন বিশ্বাস বলেন, চালকের ঘুম ভাব থাকার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর