Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

বিদ্যুতের পর এবার গ্যাসের দাম বাড়ল

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ২৫২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিদ্যুতের পর এবার গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে। ক্যাপটিভে প্রতি ইউনিট ১৬ থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে। নতুন দাম ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে।

আজ বুধবার দুপুরে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ। এতে জানানো হয়, ভর্তুকি সমন্বয়ে গ্যাসের এ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বিদ্যুত খাতে সরবরাহ করা প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের দাম ৫ টাকা ২ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১৪ টাকা করা হয়েছে। আর শিল্পখাতে ১৬ টাকার গ্যাসের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ টাকা।


এছাড়াও ক্যাভটিভ পাওয়ার (শিল্প কারখানার নিজস্ব বিদ্যুৎ উৎপাদনে) খাতে গ্যাস প্রতি ঘনমিটারে দাম ১৬ টাকা থেকে বেড়ে ৩০ টাকা, বৃহৎ শিল্পে ১১ টাকা ৯৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা, মাঝারি শিল্পে ১১ টাকা ৭৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা এবং ক্ষুদ্র শিল্পে ১০ দশমিক ৭৮ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা করা হয়েছে।

এছাড়াও বাণিজ্যিক গ্যাস সংযোগে প্রতি ঘনমিটারের দাম ২৬ টাকা ৬৪ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা ৫০ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে।

তবে প্রজ্ঞাপনে আবাসিক গ্রাহকদের এক চুলার দাম আগের মতোই ৯৯০ টাকাই রাখা হয়েছে। একই ভাবে দুই চুলার দাম ১০৮০ টাকাই আছে। সিএনজিতেও প্রতি ঘনমিটার ৪৩ টাকা এবং চা শিল্পের গ্যাসের দামও আগের মতো প্রতি ঘনমিটার ১১ টাকা ৯৩ পয়সাই আছে।


আরও খবর



যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজের বার্ষিক ক্রীড়ার পুরস্কার বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:মঙ্গলবার বিকেলে যশোর ক্যান্টনমেন্ট কলেজে ৩৫তম আন্তঃহাউজ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতার বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি সেনাবাহিনীর যশোর অঞ্চলের এরিয়া কমান্ডার ও ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মোহাম্মদ মাহবুবুর রশীদ। এ সময় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে সহশিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে খেলাধুলার ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বক্তব্য রাখেন। তিনি তার বক্তব্যে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীদের একাডেমিক ফলাফল ও শৃঙ্খলার মানের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ লে. কর্ণেল নুসরাত নুর আল চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথিসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা শিক্ষার্থীদের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উপভোগ করেন। প্রতিযোগিতা শেষে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বাংলাদেশের ৮টি বিভাগের ইতিহাস ঐতিহ্য নিয়ে ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয়। ডিসপ্লের মাধ্যমে নিজ নিজ বিভাগের ইতিহাস ঐতিহ্য খাবার, স্থাপনার প্রতিচ্ছবি ফুঁটিয়ে তোলা হয়। অনুষ্ঠানে যশোর এরিয়ার উর্দ্ধতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা, কলেজের শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, একাডেমিক কার্যক্রমের পাশাপাশি খেলাধূলার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের নৈতিক মনোবল দৃঢ় ও প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব তৈরি করার উদ্দেশে প্রতি বছর আন্তঃহাউজ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।সুস্থ্য দেহে সুন্দর মন, এই স্লোগানে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় এ বছর প্রায় ৪৩টি ইভেন্টে দেড় হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।


আরও খবর



অমর একুশে বইমেলায় আসছে জোনায়েত হোসেন জিদানের 'প্রিন্ট অন ডিমান্ডে হাতেখড়ি'

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image
সাব্বির খান, ইবি প্রতিনিধি:অমর একুশে বইমেলা উপলক্ষে আসছে ফ্রিল্যান্সার ও তরুণ উদ্যোক্তা জোনায়েত হোসেন জিদান এর প্রথম বই 'প্রিন্ট অন ডিমান্ডে হাতেখড়ি'। 

বইটি প্রকাশ করেছে দেশের স্বনামধন্য প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান শব্দশৈলী প্রকাশনী। ১৫২ পৃষ্ঠার বইটির মলাট মূল্য ৩৮০ টাকা। ইতোমধ্যে বইটির প্রি-অর্ডার শুরু হয়েছে রকমারিতে। মেলায় শব্দশৈলীর ৯ নম্বর প্যাভিলিয়ন থেকে পাঠক বইটি সংগ্রহ করতে পারবেন।

বইটি সম্পর্কে প্রকাশক জানান, “প্রিন্ট অন ডিমান্ডে হাতেখড়ি” বইটি মূলত ফ্রিল্যান্সিং ও ই-কমার্স ভিত্তিক। প্রিন্ট অন ডিমান্ড বর্তমানে বিশ্বব্যাপী খুবই জনপ্রিয় একটি ব্যবসা মডেল। এই ব্যবসার মডেলটি এমন, যেখানে প্রোডাক্ট এর যখন ডিমান্ড হবে (গ্রাহকের চাহিদা হবে) তখনই সেটি প্রিন্ট হয়ে গ্রাহকের কাছে পৌঁছে যাবে। যার ফলে গ্রাহকের পছন্দ মত প্রোডাক্ট ডিজাইন করে কাঙ্ক্ষিত সেবা দেওয়া যায়। বইটিতে লেখক প্রিন্ট অন ডিমান্ড এর পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সিং এর বেসিক বিষয় নিয়েও আলোচনা করেছেন। 

বইটি সম্পর্কে লেখক জানান, 'বইটিতে কীভাবে প্রিন্ট অন ডিমান্ড এর ব্যবসা শুরু করা যাবে এবং কী কী বিষয় জানা লাগবে, সে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সেই সাথে একজন নতুন মানুষ কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং সেক্টর নিয়ে তার ক্যারিয়ার শুরু করবে সেটারও আলোচনা করা হয়েছে। তাই তিনি মনে করেন, যদি কেউ ইন্টারনেট এর মাধ্যমে তার ক্যারিয়ার শুরু করতে চায় তাহলে এই বইটির দেওয়া  বিষয় গুলো ধরে ধরে প্র‍্যাক্টিস করলে অবশ্যই এই বইয়ের মাধ্যমে অনলাইন সেক্টরের ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।'

প্রসঙ্গত, জোনায়েত হোসেন জিদান একজন শিক্ষার্থী। তিনি বর্তমানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে নেত্রকোনা সরকারি কলেজ এ অনার্স ৩য় বর্ষে রসায়ন বিভাগ নিয়ে অধ্যয়নরত আছেন। পড়ালেখার পাশাপাশি তিনি একজন দক্ষ ফ্রিল্যান্সার ও উদ্যেক্তা। তিনি বর্তমানে ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ করছে সেই সাথে ই-কমার্স ভিত্তিক প্রিন্ট অন ডিমান্ড এর সেলার হিসাবে কাজ করছেন।

আরও খবর

আজ বইমেলা শুরু হচ্ছে

বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মাগুরার মহম্মদপুরে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৪জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বালিদিয়া গ্রামে বুধবার সকাল ১১ টার দিকে তানহা (৫) নামের এক শিশু  নিজ বাড়ির পাশের ডোবার পানিতে ডুবে মারা গেছে।
তানহা বালিদিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী সুমন মোল্লার একমাত্র মেয়ে।

আরও খবর

গাংনীতে বালাইনাশক ব্যবহারে উদাসিন কৃষকরা

শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় গলায় ফাঁস দিলো কলেজ ছাত্র

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৪জন দেখেছেন

Image

মিরসরাই প্রতিনিধি:মিরসরাইয়ে মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়েছেন জাহিদ উদ্দিন (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্র। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার ধুম ইউনিয়নের নাহেরপুর এলাকার আসাদ মুহুরী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। জাহিদ নাহেরপুর এলাকার আসাদ মুহুরী বাড়ির জসীম উদ্দিনের ছেলে। সে উপজেলার মহাজনহাট ফজলুর রহমান কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কয়েকদিন ধরে পরিবারকে মোটরসাইকেল কিনে দিতে বলে। তার বাবা-মা কিনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সে অভিমান করে সোমবার রাতের যেকোনো সময় তার কক্ষে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে।

জাহিদের প্রতিবেশী মুনতাসির ভূঁইয়া জানান, রাতে জাহিদ তার কক্ষে ঘুমাতে যায়। সকাল ১১ টার দিকে তার মা ডাকলে ঘুম থেকে না উঠায় দরজা ভেঙ্গে দেখে তার লাশ ফ্যানের সাথে ঝুলতে থাকে। পরে সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন জানান, ধুম ইউনিয়নের নাহেরপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।


আরও খবর



বিরামপুরে নদী খননের মাটি বিক্রির মেয়াদ বৃদ্ধি না করার দাবি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৬জন দেখেছেন

Image

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলাধীন ছোট যমুনা নদী খননের বালি ও মাটি বিক্রির মেয়াদ বৃদ্ধির কারণে ছোট যমুনা নদীর হোসেনপুর বালু মহাল ইজারা গ্রহণকারী মাহবুব আলম বকুল ব্যাপক আকারে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে মর্মে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুজহাত তাসনীম আওন এর নিকট গত বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) লিখিত অভিযোগে বলা হয়, বিরামপুর কলেজ বাজারের মাহবুব আলম বকুল বাংলা ১৪৩০ সনের ১লা বৈশাখ হতে ৩০ চৈত্র পর্যন্ত এক বছরের জন্য ছোট যমুনা নদীর হোসেনপুর বালু মহাল ইজারা গ্রহণ করেন। সেই মোতাবেক তিনি বালু উত্তোলন করে আসছেন।

অপরদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ড ২০২৩ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর বিজ্ঞপ্তির মাধমে একই নদীর কাটলা ইউনিয়ন থেকে বিরামপুর পৌরসভা পর্যন্ত ১২.১০০ কিলোমিটার নদী পুন:খননের মাধ্যমে বালু ও মাটি বিক্রির জন্য দিনাজপুর উপ-শহরের মেসার্স মাহ এন্টারপ্রাইজকে কার্যাদেশ প্রদান করেছে। ঐ কার্যাদেশে তিন মাসের মধ্যে বালু ও মাটি অপসারণের নির্দেশনা দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয় নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বালু ও মাটি বিক্রি করতে ব্যর্থ হলে নিলাম উপ-কমিটি পুন: দরপত্রের মাধ্যমে বালু মাটি বিক্রি করবে। ঐ সময়ের বালু ও মাটি বিক্রিতে ব্যর্থ শাহ এন্টারপ্রাইজ বালু/মাটি বিক্রির সময় বৃদ্ধির আবেদন করে।

সেই মোতাবেক কর্তৃপক্ষ চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি থেকে ৬ মাসের সময় বৃদ্ধি করেছে। এই সময় বৃদ্ধির কারণে উপরোক্ত ছোট যমুনা নদীর হোসেনপুর বালু মহাল ইজারা গ্রহণকারী মাহবুব আলম বকুল অপূরনীয় ভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। একারণে শাহ এন্টার প্রাইজের বালু ও মাটি বিক্রির মেয়াদ বৃদ্ধির কার্যাদেশ বাতিল করে ছোট যমুনা নদীর হোসেনপুর বালু মহাল ইজারা গ্রহণকারী মাহবুব আলম বকুলকে সরকারি স্বার্থ মোতাবেক ব্যবসা পরিচালনার সুযোগ দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে।


আরও খবর