Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২৭০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বুধবার (১২ জুন) দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মোহাম্মদ জগলুল হোসেন,পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদের আরও স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দিয়েছেন।

জব্দ হওয়া সম্পদ ও ফ্ল্যাটের মধ্যে- রুপগঞ্জে ২৪ কাঠা জমি, উত্তরায় ৩ কাঠা, বাড্ডায় ৩৯ দশমিক ৩০ জমির ওপর দুটি ফ্ল্যাট, বান্দরবান জেলায় ২৫ একর জমি, স্ত্রী জিসানের নামে আদাবর থানার পিসিকালচার এলাকায় ৬টি ফ্ল্যাট, গুলশানে বাবার কাছ থেকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি মূলে সম্পত্তিতে ৬ তলা ভবন, সিটিজেন টিভির শেয়ার ও টাইগার এপারেলসের শেয়ার রয়েছে।

মামলার অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক হাফিজুল ইসলাম এ আবেদন করেন। আবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজির আহমেদের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে নিজ নামে, স্ত্রী জীশান মীর্জা ও কন্যাদের নামে দেশ-বিদেশে শত শত কোটি টাকার জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৩ ও ২৬ মে দুই দফায় বেনজির আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের ৬২১ বিঘা জমি জব্দের আদেশ দেন আদালত। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জমির মালিক বেনজিরের স্ত্রী জীশান মীর্জা। তার নামে প্রায় ৫২১ বিঘা জমি খুঁজে পেয়েছে দুদক। বাকি ১০০ বিঘার মতো জমি রয়েছে বেনজির, তার তিন মেয়ে ফারহিন রিশতা বিনতে বেনজির, তাহসিন রাইশা বিনতে বেনজির ও জারা জেরিন বিনতে বেনজির এবং স্বজন আবু সাঈদ মো. খালেদের নামে।


আরও খবর



স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৪২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:চলমান এইচএসসি ও সমমানের আগামী ১৮ জুলাইয়ের (বৃহস্পতিবার) পরীক্ষা স্থগিত করেছে বাংলাদেশ আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি। তবে আগামী ২১ জুলাই থেকে পূর্বঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী পরীক্ষা যথারীতি চলবে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) রাতে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটির এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে, সারাদেশে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শ্রেণি কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়, অনিবার্য কারণবশত আগামী ১৮ জুলাই (বৃহস্পতিবার) অনুষ্ঠেয় সব শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করা হলো। স্থগিত হওয়া পরীক্ষার পরবর্তিত সময়সূচি পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে। ২১ জুলাই থেকে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী পরীক্ষা যথারীতি চলবে।


আরও খবর

দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪




দুমকিতে চেয়ারম্যান'র বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ।

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image

(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি, রাসেল হোসেন নিরব

 পটুয়াখালীর দুমকিতে  ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে ইউনিয়নবাসি।

বুধবার  বেলা সাড়ে ১০টায় উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ ও চেয়ারম্যানের বাড়ির সামনে  আঙ্গারিয়া ইউনিয়নবাসির ব্যানারে ৫শতাধিক নারী-পুরুষ  মানববন্ধন ও  বিক্ষোভ  কর্মসূচিতে অংশ নেন। বিক্ষোভপূর্ব সমাবেশে আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ও উপজেলা যুবলীগের সহ সম্পাদক  সুজন জোমাদ্দার, জেদ্দা আওয়ামী লীগের সদস্য  সেলিম শিকদার, আঙ্গারিয়া ইউনিয়ন আলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবু জাফর জোমাদ্দার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল শরীফসহ আওয়ামীলীগে অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের একাধিক নেতাকর্মীরা বক্তৃতা করেন। বক্তারা জেলেদের মাঝে সরকারি চাল বিতরণকে কেন্দ্র করে আঙ্গারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম মর্তুজা শুক্কুর'র বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান পাশাপাশি একটি কুচক্রী মহল সামান্য একটা বিষয়কে চুনকালি মেখে নোংরা রাজনীতির পরিচয় দিচ্ছেন বলে বক্তারা বলেন। 

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৯ জুন) রাত সাড় ১০টার দিকে আঙ্গারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ গোলাম মর্তুজার জলিশাস্থ গ্রামের বাড়ি থেকে জেলে ভিজিএফ'র ৩শ' ১৮বস্তা সরকারি চাল জব্দ করে স্থানীয় প্রশাসন। চাল জব্দের পরের দিন রবিবার রাতে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুর রহমান বাদি হয়ে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ গোলাম মর্তুজার বিরুদ্ধে দুমকি থানায় ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ (ক) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।  আর এ সুযোগে মর্তুজা বিরোধী রাজনৈতিক ও নির্বাচনী প্রতিপক্ষের অতিউৎসাহী কতিপয় লোকজনের  অংশগ্রহনে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন। এবিষয়ে মোবাইল ফোনে আঙ্গারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ গোলাম মর্তুজা বলেন, প্রভাবশালী একটি চক্র তাঁকে সামাজিক ভাবে হেয় করতেই পরিকল্পিত ভাবে এগুলো করাচ্ছেন। ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের অসচ্ছল জেলেদের চাল নিতে অতিরিক্ত খরচ বাচাঁতে তিনি চালগুলো তার বাড়িতে এনে আগেও বিতরণ করেছেন এবং সে অনুযায়ী এবারও এনে ছিলেন। এখানে খারাপ কোন উদ্দেশ্য ছিলনা। দরিদ্র জেলেদের সুবিধা দিতে গিয়ে তিনি বিপাকে পড়েছেন। 


আরও খবর



গলাচিপায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

রিয়াদ হোসাইন,গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:পটুয়াখালীর গলাচিপায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) এর ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকাল ৫টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে এটি অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনাল খেলায় ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পরে টাইব্রেকারে আমখোলা ইউনিয়ন একাদশ ৪-২ গোলে গলাচিপা সদর ইউনিয়ন একাদশকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়। টুর্ণামেন্টে ১টি পৗরসভা ও ১২টি ইউনিয়নসহ মোট ১৩টি দল অংশগ্রহণ করে। 

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলা উপভোগ ও বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য এসএম শাহজাদা। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ওয়ানা মার্জিয়া নিতু ও পৌর মেয়র আহসানুল হক তুহিন। সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নাসিম রেজা, গলাচিপা প্রেস ক্লব সভাপতি সমিত কুমার দত্ত মলয়, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক তপন বিশ^াস ও মোফাজ্জেল হোসেন মাসুদ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফরিদ আহসান কচিন প্রমুখ।

এছাড়া সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, শিক্ষক, সুশীল সমাজসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আবু বাকার শিবলী।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর

আমতলীতে ৩দিন ব্যাপী কৃষি মেলা শুরু

বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪




খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুস্হতার জন্য দোয়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১২৮জন দেখেছেন

Image

ষ্টাফ রিপোর্টারঃআজ (৮ জুলাই, ২০২৪) বিকেলে বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া'র আশু রোগমুক্তি কামনায় বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটি'র অন্যতম সদস্য ও জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটি'র আহবায়ক  চিত্রনায়ক  হেলাল   খান 

সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলায় তার বাস ভবনে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত করেন।


আরও খবর



২০০ বছরের পুরোনো রোপনকৃত গাছ ভেংগে পরার ঝুঁকি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ২০২জন দেখেছেন

Image

 জহুরুল ইসলাম খোকন (নীলফামারী) প্রতিনিধি:রেলওয়ের শহর নীলফামারীর সৈয়দপুরে। প্রায় ২০০ বছরের পুরোনো গাছগুলো উপড়ে বা ভেংগে পরার ঝুঁকিতে থাকায় আতংকিত শহরবাসী। পর্যাপ্ত বৃষ্টি বা  ঝড় হলে যে কোন সময় বাড়তে পারে প্রানহানীর ঘটনা।গাছগুলো কেটে ফেলার জন্য রেলবিভাগও  বনবিভাগকে স্হানীয়রা অনুরোধ জানালেও কাটা হচ্ছে না। এর ফলে লোকজন আতংক ও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওই গাছগুলোর নিচে বসবাস ও চলাচল করছেন।

সৈয়দপুর রেলবিভাগ জানায়, ১৮৭০ সালে আসাম বেঙ্গল রেলওয়ের বিশাল কারখানা গড়ে উঠে সৈয়দপুরে। ওই সময় এ শহরে ৮০০ একর রেলওয়ের এ্যাকোয়ারকৃত জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় দুই হাজারেরও বেশি বিশাল বিশাল বৃক্ষ রোপন করা হয়। এছাড়া দেশের বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানা সহ রেলওয়ে পুলিশ লাইন, রেলের প্রশাসনিক দপ্তর, রেলওয়ে হাসপাতাল, খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের দুটি গির্জা, রেলওয়ে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বসবাসের জন্য একাধিক বাংলো ও কোয়ার্টার নির্মাণ করা হয় এই জমিতে।

রেলবিভাগ আরো জানায় বৃটিশ আমলে সৈয়দপুর শহরের শোভা বৃদ্ধি ও শীতল ছায়া দিতে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ওই সময় প্রায় দুই হাজার গাছ রোপণ করেন এ্যাকোয়ারকৃত জমিতে ।গাছ গুলোর মধ্যে রয়েছে রেইনট্রি, কড়াই, সিরিস, কৃষ্ণচূড়া, ইউক্যালিপটাস, শাল, অর্জুন, দেবদারু ইত্যাদি। ১৮৭০ সালে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা স্থাপনের সময় সৈয়দপুর শহরের রেলওয়ে অফিসার্স কলোনি, সাহেবপাড়া, মিস্ত্রিপাড়া, নতুন ও পুরাতন বাবুপাড়া, মুন্সিপাড়া, খালাসি মহল্লা, গার্ড পাড়া, হাওয়ালদার পাড়া, রোমান ক্যাথলিক ও প্রোটেস্ট্যান্ট গির্জা, পুলিশ লাইন, রেলওয়ে হাসপাতাল এমনকি রেলওয়ে কারখানায় রোপণ করা হয় ওই গাছগুলো।

১৮ জুন বেলা সারে ১১ টায় শহরের হাওয়ালদার পাড়া গিয়ে দেখা যায়, ১৭ জুন রাতে বৃষ্টি ও সামান্য বাতাসে বিশাল মাপের একটি সিরিস গাছের ডাল আলতো ভাবে ভেঙে টিনের চালে পড়ে আছে। শুকিয়ে যাওয়া ওই সিরিস গাছের বাকি ডাল গুলোও সামান্য বাতাসে ভেঙে ভেঙে পরছে। ঘুর্ণিঝড়ের মতো বাতাস বইলে ওই গাছের ডাল ভেঙে পরা সহ উপড়ে পরারও আশংকা রয়েছে বলে জানান এলাকাবাসী। অতিসত্বর গাছটি কেটে না ফেললে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে অর্ধশতাধিক মানুষের প্রানহানী ঘটতে পারে বলে জানান আতংকিত এলাকাবাসী। 

সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেট বিভাগের ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম জানান, গাছগুলো বাংলাদেশ রেলওয়ের সম্পদ। ইচ্ছে করলেই এসব কেটে ফেলা সম্ভব নয়। আমরা ১৬টি ঝুঁকিপূর্ণ গাছ চিহ্নিত করেছি। সৈয়দপুর রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে। তিনি তদন্ত শেষে ওইসব গাছ কেটে ফেলার অনুমতি দিবেন বলে জানান। 

সৈয়দপুর সামাজিক বনায়ন ও নার্সারি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহিকুন ইসলাম মুশকরি জানান, সৈয়দপুর শহরের অনেক গাছই ঝুঁকিপূর্ণ। এর মধ্যে রেলওয়ের অর্ধশতাধিক গাছ কেটে ফেলা দরকার।কারন এ গাছ গুলো অতি পুরাতন। যেকোনো সময় উপড়ে বা ভেংগে পরে প্রান হানি ঘটতে পারে। 

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) সাদেকুর রহমান জানান, শিগগিরই রেলের ঝুঁকিপূর্ণ গাছগুলো কেটে ফেলার প্রক্রিয়া চলছে। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি মিললে অল্প দিনের মধ্যেই ঝুকিপুর্ন সব ধরনের গাছ কাটা হবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর