Logo
আজঃ মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

বান্দরবানে মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলি, র‌্যাব সদস্য আহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৩৬৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক; বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধু‌ম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমা‌ন্তের কোনারপাড়ায় মিয়ানমার সীমান্তে বিচ্ছিন্নতাবাদী গ্রুপের সঙ্গে র‌্যাব সদস্যদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় র‌্যাবের এক সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে  কক্সবাজারের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হাসপাতালে আনা হয়। আজ সোমবার রাত ৮টার দিকে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালে দায়িত্বরত উপপরিদর্শক (এসআই) রিপন চৌধুরী বলেন, রাত ১০টার দিকে গুলিবিদ্ধ এক র‌্যাব সদস্যকে সদর হাসপাতালে আনা হয়। তবে গুলিবিদ্ধ র‌্যাব সদস্যের নাম জানাতে পারেননি তিনি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সীমান্তে চোরাচালান রোধে কক্সবাজা‌রের র‍্যাব-১৫ সদস্যরা মিয়ানমার সীমান্তে অভিযান চালান। এ সময় মিয়ানমারের বিচ্ছিন্নতাবাদী সশস্ত্র সংগঠনের সদস্যরা র‍্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বলেন, ‘কোনারপাড়া এলাকায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। তবে কাদের মধ্যে এ গোলাগু‌লি হয়েছে তা এখনও বলতে পারছি না।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ডিউটি অফিসার, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) জয়দেব বলেন, ‘কোনারপাড়া এলাকায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। তবে কাদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটেছে তা এখ‌নো নিশ্চিত হতে পারিনি।’

এদিকে, এ বিষয়ে র‌্যাবের পক্ষ থেকে এখনো কিছু জানানো হয়নি। তবে কক্সবাজার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হাসপাতালে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে।


আরও খবর



দিনাজপুরে চপ বানাতে গিয়ে বেগুনের ভিতর আল্লাহর নাম

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

দিনাজপুর প্রতিনিধি ;চপ বানাতে গিয়ে দিনাজপুরে বেগুনের ভিতরে দেখা মিললো আরবি হরফে লেখা মহান আল্লাহর নাম। ইফতারির জন্য চপ বানাতে বেগুন কাটার পর অলৌকিক এ ঘটনা দেখতে পান দিনাজপুর বীরগঞ্জের এক গৃহবধু।

আল্লাহ লেখা এই বেগুনটিকে এক নজর দেখতে ভীড় করছেন শত শত মানুষ ওই বাড়ীতে।বেগুনের দুই ফালিতেই আরবিতে আল্লাহ নামের হরফ। আত্মশুদ্ধির এ পবিত্র মাহে রমজানে সারাদিন রোজা শেষে ইফতারিতে বেগুনী প্রস্তুত করতে গৃহবধু বেলী আরা বেগম বাড়িতে থাকা একটি বেগুন কাটার পর আল্লাহু লেখা দেখতে পান। পরে স্বামী ইলিয়াস আহমেদকে সাথে নিয়ে স্থানীয় একটি মাদারাসার হুজুরের শরনাপন্ন হন।

বিষয়টি জানাজানি হলে বেগুনটি দেখতে এক নজর দেখতে স্থানীয় হিন্দু-মুসলিমসহ দুর দুরান্ত থেকে ছুঁটে আসা শত শত মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন। কিছুক্ষন পর পর কেউ না কেউ আসছেন ঐ বাড়ীতে। এসে বেগুনটিকে কাছ থেকে দেখছেন, তুলছেন ছবিও। প্রথমবার এমন ঘটনার সাক্ষী হয়ে নিজেদের অনুভূতির কথাও জানান।

বর্তমানে বেগুনটি ফ্রীজে সংরক্ষন করে রাখা হয়েছে।স্থানীয়দের দাবী এটা মহান আল্লাহর কুদরতি ক্ষমতাবলের নিদর্শন, যা মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য আল্লাহর প্রতি আনুগত্য বাড়াবে। সেই সাথে আল্লাহর এই নিদর্শন সেই পরিবারের জন্য আশীর্বাদ স্বরুপ বলে ধারনা স্থানীয়দের।

বেগুনের গায়ে মহান সৃষ্টিকর্তার নামের এই নিদর্শন স্বচোখে দেখতে চাইলে আপনাকে যেতে হবে দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের জগদল গ্রামে। গ্রামে গিয়ে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে যে কাউকে জিজ্ঞাসা করলে বলে দিবে ওই বাড়ির ঠিকানা।


আরও খবর



রাণীশংকৈলে বৈদ্যুতিক শক খেয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৪৪জন দেখেছেন

Image
রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার রাজোর কাতিহার মন্দিরপাড়া এলাকায় নরেশ আমাসু রায়ের নির্মানাধীণ বাড়িতে কাজ করতে গিয়ে মঙ্গলবার ( ১৬ এপ্রিল) পরিক্ষিত রায় (৩০) নামে এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পরিক্ষিত রায় উপজেলার চোপড়া উত্তর পাড়া এলাকার খিরেন্দ্র চন্দ্র রায়ের ছেলে। প্রতিদিনের ন্যায় স্থানীয় রাজমিস্ত্রী সুমনের সাথে কাজ করতে যায়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার রাজোর মন্দির পাড়া এলাকায় নরেশ আমাসু রায়ের নির্মাণাধীন ভবনে ৫ জন শ্রমিক কাজ করছিলেন। এসময় অসাবধানতাবশত পরিক্ষিত রায় রড কাটার জন্য ড্রিল মেশিনে বৈদ্যুাতিক সংযোগ দিতে গিয়ে ছেঁড়া তারের সঙ্গে জড়িয়ে গুরুতর আহত হন । পরে স্থানীয়দের সহায়তায় পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পীরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল আনাম ডন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ আমাদের হেফাজতে রয়েছে এজন্য রাণীশংকৈল থানায় আমরা একটি বার্তা পাঠিয়েছি। যাচাই বাচাই শেষে বার্তার উত্তর পেলে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

আরও খবর



বিপুল ভোটে জয়ী পুতিন

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | ১১৫জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:নির্বাচনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বিপুল ভোটে জয় পেয়েছেন দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শুক্রবার শুরু হওয়া ভোটের প্রাথমিক ফলাফল রবিবার প্রকাশ করা হয়। বুথ ফেরত সমীক্ষার বরাতেও পুতিন বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছিল।

এর মাধ্যমে আরও ৬ বছরের জন্য ক্ষমতায় থাকা নিশ্চিত হলো পুতিনের। এবারের নির্বাচনে পুতিন প্রায় ৮৮ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। সোভিয়েত ইউনিয়ন পরবর্তী যুগে এটি রেকর্ড। ফলে এ নির্বাচনে জয়লাভের মধ্যদিয়ে রাশিয়ার ২০০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় ক্ষমতায় থাকতে যাচ্ছেন পুতিন।

আজ সোমবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা, রয়টার্স, এএফপিসহ একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সদ্যসমাপ্ত নির্বাচনে বিশাল জয়ের মাধ্যমে নিজের ক্ষমতাকে আরও পোক্ত করেছেন পুতিন। যদিও এই নির্বাচন গণতান্ত্রিক বৈধতার সংকটের কারণে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছে। এর আগে গত শুক্রবার থেকে রবিবার পর্যন্ত তিন দিন ধরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে জয়লাভের পর দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন পুতিন। তিনি বলেছেন, ‘এই সমর্থনের জন্য এবং আমার ওপর বিশ্বাস রাখার জন্য আপনাদের সবাইকে, সব নাগরিককে ধন্যবাদ জানাতে চাই।

পুতিন বলেন, ‘তারা যতই আমাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করুক, আমাদের ইচ্ছা-চেতনাকে দমন করার চেষ্টা করুক, ইতিহাস বলে- কেউই এমন কিছু করে কখনো সফল হয়নি। তাদের এ প্রচেষ্টা এখনো কাজে দিচ্ছে না, ভবিষ্যতেও দেবে না।

কেজিবির সাবেক লেফটেন্যান্ট কর্নেল পুতিন ১৯৯৯ সালে প্রথম ক্ষমতায় আসেন। এ নির্বাচনে জয়ের মধ্যদিয়ে পুতিন পশ্চিমাদের একটি বার্তা দিলেন, যুদ্ধক্ষেত্র কিংবা শান্তি প্রতিষ্ঠায় আরও কয়েক বছর রাশিয়াকে নেতৃত্ব দেবেন তিনি। এ নির্বাচনে জয়ের মধ্যদিয়ে ৭১ বছর বয়সী পুতিন আগামী ৬ বছরের জন্য ক্ষমতা পাকাপোক্ত করে নিলেন।

গত শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত তিন দিন ধরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল সবশেষ দেশটির সবচেয়ে পশ্চিমে অবস্থিত বাল্টিক সাগরের তীরে কালিনিনগ্রাদ অঞ্চলে ভোটগ্রহণ হয়। এরপর বুথ ফেরত জরিপের ফল প্রকাশ করে রাশিয়ার সরকারি জরিপ সংস্থা ভিটিএসআইওএম।


আরও খবর



মধুপুরে ৩ দিন ব্যাপি ট্রেনিং অব সেকেন্ডারী স্কুল টিচার্স অন এ্যাডোলসেন্ট হেলথ্ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ১৫৮জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ-

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আয়োজনে এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এ্যাডোলসেন্ট এন্ড স্কুল হেলথ প্রোগ্রাম এর ব্যবস্থাপনায় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষকদের নিয়ে কিশোর কিশোরীদের স্বাস্থ্যসেবা প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯মার্চ) সকাল ১০টায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে মধুপুর উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্সের হল রুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে।


স্বাস্থ্যসেবা প্রশিক্ষণে  কিশোর কিশোরীদের কৈশোরকালিন স্বাস্থ্য বিষয়  নিয়ে আলোচনা করা হয়।উক্ত প্রশিক্ষনের প্রথম দিনে  আলোচনা করেন মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সহকারী সার্জন ডাঃ ফাতেমা-তুজ-জহুরা, এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক  শিক্ষা অফিসার  আব্দুর রশিদ ও উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স এর সহকারী সার্জন ডাঃ বিশ্বজিত চন্দ্র দাস।  এসময় উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকাগন প্রশিক্ষণে উপস্হিত ছিলেন।


উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ সাইদুর রহমান  জানান, কৈশোর ও  বয়ঃসন্ধিকালীন সময়ে ছেলেে মেয়েদের শরীরে ও  মনে পরিবর্তন শুরু হয় এবং যৌবনের লক্ষন সমুহ প্রকাশ পেতে শুরু করে। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্হা সংজ্ঞা অনুযায়ী ১০ হতে ১৯ বৎসর বয়সটাই হল কৈশোরকাল। এ সময়টাতে ছেলে মেয়েদের শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন হয় এসব বিষয় নিয়েই শিক্ষকদের মাঝে বিষদ আলোচনা করা হয়। যাতে শিক্ষকগন স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  এ বিষয় নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে  আলোচনা করতে পারেন। তিনি আরও জানান, এ প্রশিক্ষণ তিনদিন ব্যাপী চলমান থাকবে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ডেমরায় জনসাধারণের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃরাজধানীর ডেমরা থানাধীন ৬৬ নং ওয়ার্ডের ভুট্টোচত্বর এলাকায় দীর্ঘ প্রায় ১৫ বছরের পুরনো একটি রাস্তা বন্ধ করে উঁচু দেয়াল নির্মাণ করার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে এলাকাবাসী। এলাকাবাসীর ব্যানারে শনিবার সকাল ১১ টায় ঐ রাস্তার সামনে ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর নারী পুরুষ মানববন্ধনে অংশ নেন।

এ সময় তারা বলেন, জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কের মাঝখানে দেয়াল তুলে সাধারণ মানুষের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে লিপি আক্তার নামে এক নারী। এতে প্রায় ৪০ পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। ফলে স্কুল পড়ুয়া সন্তানদের নিয়ে পরিবারগুলো মানবেতর জীবন যাপন করছে। এলাকার বাসিন্দাদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। অবিলম্বে এই সড়কের মাঝে উত্তোলন করা দেয়াল ভেঙে সাধারণ মানুষের চলাচলের রাস্তা উম্মুক্ত করে দেওয়ার দাবি জানান তারা। অবিলম্বে এই সড়কটি অবমুক্ত করে দেওয়া না হলে ওই এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি সহ ওয়াসার খাবার পানি সরবরাহ বিঘ্নিত হবে, সুয়ারেজ ব্যবস্থা ভেঙে পড়বে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে ভুক্তভোগী পরিবারগুলো অবিলম্বে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এবং ঢাকা জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করার ঘোষণা দিয়েছেন। এবং এ বিষয়ে ভবিষ্যতে বৃহত্তম কর্মসূচি পালন করারও ঘোষণা দেন তারা।

মানববন্ধন থেকে স্থানীয় ঢাকা-৫ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মশিউর রহমান মোল্লা সজল এবং ডেমরা থানা অফিসার ইনচার্জ জহিরুল ইসলামকে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

উল্লেখ থাকে যে গত ২০০৯ সালে মাতুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন মিয়ার উদ্যোগে স্থানীয় শহীদ কন্ট্রাকটার কে সাথে নিয়ে জনসাধারণের চলাচলের জন্য ১২ ফুট রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়। মাতুয়াইল নিউটাউনের গুগল ম্যাপে রাস্তাটি দৃশ্যমান আছে। লিপি আক্তার নামে একজন মহিলা প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থেকে গত কয়েকদিন আগে টিনের ব্যারিকেড দিয়ে রাস্তার উপরে উঁচু দেয়াল নির্মাণ করে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেন। রাস্তাটি দেয়াল তুলে বন্ধ করে দেয়ায় ভুক্তভোগী চল্লিশটি পরিবার বর্তমানে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এই রাস্তার নিচ দিয়ে স্থানীয়দের গুরুত্বপূর্ণ সেবা প্রতিষ্ঠান ওয়াসার পানির পাইপ পয়ঃনিষ্কাশনের সুয়ারেজ লাইন স্থাপন করা হয়েছে। এ রাস্তাটি এই চল্লিশটি পরিবারের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । এ রাস্তার ভেতরে বেশকিছু বহুতল ভবন অবস্থিত যেখানে শত শত যানবাহনও চলাচল করে আসছিল দীর্ঘদিন যাবৎ। এছাড়াও বর্তমানে আরো কিছু বহুতল ভবন নির্মাণাধীন অবস্থায় আছে।ভুক্তভোগী পরিবার গুলোর পক্ষে আব্দুল কাদের নামক একজন এ বিষয়ে ডেমরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। 

রাস্তা খুলে দেওয়ার দাবিতে ভুক্তভোগীরা কয়েক দফা প্রতিবাদ করেছে। সম্প্রতি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের  ৬৬নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরকেও বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।

বাদশামিয়া রোড সংলগ্ন ভুট্টো চত্বর এলাকার আয়েশা  হক ট্রেড সেন্টার সংলগ্ন এলাকায় জনৈক লিপি আক্তার চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন সড়কের প্রধান প্রবেশদ্বারে উঁচু দেয়াল তুলে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। লিপি আক্তার সন্ত্রাসীদের দাঁড় করিয়ে রেখে সশস্ত্র মহড়া দিয়ে ভয়-ভীতি সৃষ্টি করে এই স্থানে উচু প্রাচীর নির্মাণ করে। লিপি আক্তারের মা আয়েশা খাতুন ২০০৯ সালে এই জায়গাটি রাস্তার জন্য ছেড়ে দেয়। লিপি আক্তারের মা একই খতিয়ানভুক্ত এই জমি সহ আশেপাশের বিভিন্ন জমি এসব ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর কাছে বিক্রয় করেন। সেই সময় এই রাস্তাটিকেই চলাচলের রাস্তা হিসেবে দলিলে দেখানো হয়েছিল।সরকারি গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্রে রাস্তাটি দৃশ্যমান আছে। লিপি আক্তার ভুক্তভোগী পরিবারগুলোকে ও রাস্তা বন্ধের প্রতিবাদ করতে আসা লোকজনকে কাপড় উঁচিয়ে নারী নির্যাতন মামলার ভয় ভীতি দেখিয়ে দমন করার চেষ্টা করছে বলেও জানান তারা।


আরও খবর