Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার বর ও কনের বাড়ীতে শোকের মাতম রাশিয়ায় বন্দুকধারীদের ভয়াবহ হামলায় ১৫ পুলিশ সদস্য নিহত

আত্রাইয়ে রাজা-বাদশাকে বের করতে ভাঙতে হবে দেয়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৮১জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর আত্রাইয়ে আসন্ন কুরবানি ঈদে এবারের বড় চমক রাজা-বাদশা। সম্পর্কে তারা মামা ভাগ্নে। রাজার নামের ষাঁড়টির ওজন ২৭ মন আর বাদশার ওজন প্রায় ২২ মন। একই ঘরে আড়াই বছরেরও বেশি সময় ধরে বড় হয়েছে ষাঁড় দুটি। এখন গোয়ালে জায়গা হচ্ছে না তাদের, তাই বিক্রি করতেই হবে। গোয়ালের দর্জা ছোট, তাই দেয়াল ভেঙ্গে রাজা-বাদশাকে বের করতে হবে। এবার কোরবানি ঈদে বিক্রির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে তাদের। এই দুই ষাঁড়ের দাম হাঁকাচ্ছেন ২০ লাখ।

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ ইউনিয়নের বেওলা গ্রামের মজিবর সরদারের ছেলে জাহিদুল সরদার। তাঁর বাড়িতেই বেড়ে ওঠা ষাঁড় রাজা ও বাদশা।

তবে, শারীরিক গঠন ও ওজনের কারণে গোয়াল ঘরের দরজা দিয়ে তাদের বের করা সম্ভব হবে না বলে আশঙ্কা করছেন খামারি। ওদের বের করতে হলে দেয়াল ভাঙতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জাহিদুল ইসলাম জানান, তিনি মূলত ধান-চাল, ভুট্টা, সরিষার আড়তদার। বাড়িতে বেশ কয়েকটা ফ্রিজিয়ান জাতের গাভি রয়েছে তার। আড়াই বছর আগে দুই গাভি থেকে দুটি সাদা-কালো রঙের ষাঁড় বাছুর পেয়েছেন তিনি। বাছুরের শারীরিক গঠন দেখে আর বিক্রি করেননি। শখের বসে ধীরে ধীরে লালন পালন করেছেন।

তিনি আরও জানান, ষাঁড় দুটি প্রস্তুত করতে কোনো রাসায়নিক বা ক্ষতিকর মেডিসিন বা খাবার খাওয়ানো হয়নি। নিজের সন্তানের মতো যতেœ লালন-পালন করেছেন।

জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘হাট-বাজারে গিয়ে যদি সন্তানদের জন্য যদি কলা, আঙুর আপেল নিয়ে আসি, তাহলে ষাঁড় দুইটার জন্যও কলা বা বিভিন্ন ফলমূল নিয়ে আসতাম। মূলত খৈল-ভ’সি, ভুট্টা, ডাল, বুট, ধানের গুঁড়া, খুদের ভাত এবং খড়-ঘাস এসব খাবার খাইয়ে তৈরি করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আড়াই বছর আগে গোয়াল ঘরের খুঁটিতে বেঁধে রাখা হয়েছে ওদের। এখনো বের করা হয়নি। এখন ওদের যে শারীরিক গঠন আর যে পরিমাণ ওজন হয়েছে, তাতে গোয়াল ঘরের দরজা দিয়ে আর বের করা সম্ভব নয়। গোয়াল ঘরের দেয়াল ভেঙেই বের করতে হবে।’

দুটি গরু লালন-পালনে তার অনেক টাকা ব্যয় হয়েছে উল্লেখ করে জাহিদুল ইসলাম জানান, ২৭ মন ওজনের রাজার দাম চাওয়া হচ্ছে ১২ লাখ টাকা এবং ২২ মন ওজনের বাদশার দাম চাওয়া হচ্ছে ৮ লাখ টাকা। তবে কী দামে বিক্রি হবে, তা এখনো বলতে পারছেন না তিনি।

এ বিষয়ে আত্রাই উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর কর্মকর্তা আবু আনাছ বলেন, ‘জাহিদের ষাঁড় দুটি (রাজা-বাদশা) প্রস্তুতে আমরা তাঁকে সার্বিক পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবার কোরবানি উপলক্ষে উপজেলায় ২ হাজার ৪০৫ জন খামারি প্রায় ৫২ হাজার ৪৮৭টি পশু প্রস্তুত করেছেন। এর মধ্যে ৮ হাজার ৫৬৮টি গরু, ২২টি মহিষ, ৩৭ হাজার ৯০২ ছাগল এবং ৫ হাজার ৯৯৫টি ভেড়া রয়েছে। এই উপজেলায় চাহিদা রয়েছে ২৬ হাজার ৫৪০টি। ফলে চাহিদা পূরণের পর অতিরিক্ত প্রায় ২৬ হাজার পশু বিক্রি হবে।’


আরও খবর



২২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত ঢাকায়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ১৫১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সারাদেশে প্রবল বৃষ্টিপাত হয়েছে একদিনে ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে । রাজধানী ঢাকাসহ দেশের কয়েকটি জেলায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে দুইশর বেশি মিলিমিটার অধিক। ঢাকায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২২৪ মিলিমিটার। তবে ব্যাপক বৃষ্টি হয়েছে চাঁদপুরে। এখানে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ২৫৭ মিলিমিটার।

মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে দেওয়া এক বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এতে বলা হয়েছে, মানিকগঞ্জ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে বর্তমানে সিলেট ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমশ বৃষ্টি ঝরিয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী বর্ষণ হতে পারে।


আরও খবর



তানোরে গাছের ডালে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে গাছের ডালের সাথে  গলায় ফাঁস দিয়ে আপেল নামের (১৫) এক কিশোরের  ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। তার বাড়ি উপজেলার কলমা ইউনিয়ন ইউপির গঙ্গারামপুর গ্রামে। সে আতাউর রহমানের ছেলে। রবিবার বিকেলের দিকে মুন্ডুমালা পৌর এলাকার প্রকাশনগর খালের পার্শের গাছের ডালে গলায় ফাঁস দিয়ে ঘটে  আত্মহত্যার ঘটনা । 
 
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে,নিহত কিশোর  আপেল দীর্ঘদিন ধরে মানুষিক ভারসাম্যহীন। রোববার দুপুরের পরে মুন্ডুমালা পৌরসভার প্রকাশনগর গ্রামের পানি নিষ্কাসনের খাড়ির ধারে লাগানো গাছের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেন। স্থানীয়রা আপেল কে গাছের ডালের সাথে  ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। এসময় স্থানীয়রা থানা পুলিশ কে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন। 

এবিষয়ে  থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম জানান,  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



হিলিতে স্বল্পমূল্য টিসিবি পণ্য পেয়ে খুশি নিম্মআয়ের মানুষেরা

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:সীমান্তবর্তী দিনাজপুরের হাকিমপুর হিলিতে স্বল্পমূল্যে ফ্যামেলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবি পণ্য বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। কোরবানী ঈদের আগে স্বল্পমূল্য এই সব টিসিবির পণ্য পেয়ে খুশি নিম্নআয়ের মানুষেরা। তবে পণ্যের পরিধি বাড়ানোর দাবি সাধারণ মানুষের।

আজ রোববার সকাল ১১ টায় হাকিমপুর ডিগ্রি কলেজ মাঠে টিসিবি পণ্য বিক্রির উদ্বোধন করেন টেগ অফিসার হাকিমপুর উপজেলা মাধ্যমিক একাডেমিক কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন। এসময় টিসিবি পণ্য বিক্রয় কেন্দ্রর ডিলার আলমগীর হোসেনসহ অনেকে। 

ডিলার আলমগীর হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ১০ হাজার ৫ শ ৭১ জন স্বল্প আয়ের মানুষের (ফ্যামেলি কার্ডধারী) মাঝে জুন মাসের ২ কেজি মসুর ডাল, ২ লিটার সোয়াবিন তেল, ৫ কেজি চালসহ একটি প্যাকেজ ৪৭০ টাকা দিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে। আগামী তিন দিন পর্যায়ক্রমে পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডে টিসিবি পণ্য বিতরণ করা হবে।


আরও খবর



সিরাজগঞ্জে ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালি ও সচেতনামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৬৭জন দেখেছেন

Image
রাকিব সিরাজগঞ্জ থেকে:‘স্মার্ট ভূমি সেবার ভূমি মন্ত্রণালয়’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জে সাত দিন ব্যাপী ভূমি সেবা সপ্তাহ ২০২৪ উদযাপন, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, ও সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার  (৮ জুন)  সকালে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সদর উপজেলা ভূমি অফিসে বেলুন উড়িয়ে ও ফিতা কেটে  ভূমিসেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সিরাজগঞ্জ সদর ও কামারখন্দ ২ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ড. জান্নাত আরা হেনরী।পরে ভূমি অফিস থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে অফিসার্স ক্লাবে এসে শেষ হয়। ভূমিসেবা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে সচেতনতামূলক সভায় সভাপতিত্ব করেন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) মো. ইমরান হোসেন বিপিএএ, অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভূমি সেবা সপ্তাহের উপর দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে রুপান্তর করার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে।তার প্রতিপাদ্য হিসেবে সকল ভূমি অফিসকে স্মার্ট  সেবার ব্যবস্থা করতে হবে।

সদর ও  উপজেলার  ইউনিয়নের ভূমি অফিস গুলোতে স্মার্ট ভূমি সেবা দিতে হবে।এছাড়া ভূমি অফিসে কোন ব্যক্তি এসে সেবার নামে হয়রানি না হয়  সংশ্লিষ্টদের সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
ভূমি অফিসে কোন দালাল দ্বারা কোন সেবা গ্রহিতা হয়রানি না হয় সংশ্লিষ্টদেরকে সেদিকে নজর দিতে হবে। সকরকারের ডিজিটালাইজেশনের অন্যতম সেবা হচ্ছে ভূমি সেবা ডিজিটালাইজেশন। এর ফলে কোন নগদ লেন-দেন ছাড়াই ভূমিসেবা গ্রহীতারা কোন সময় ক্ষেপন ছাড়া ও হয়রানিমুক্তভাবে ইউনিয়ন ভূমি অফিস থেকে স্বচ্ছন্দে সেবা নিতে পারছেন। আমরা আশা করছি সময়ের ব্যবধানে স্ব-শরীরে উপস্থিত না হয়েও অনলাইনের মাধ্যমে সরকারি যে কোন সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। এতে করে সময় সাশ্রয়সহ সাধারণ নাগরিকদের অর্থ ব্যয়ও অনেক কমে আসবে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট কে. এম. হোসেন আলী হাসান, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. আব্দুস সামাদ তালুকদার, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গাজী ফজলুল মতিন মুক্তা, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মনোয়ার হোসেন, সিরাজগঞ্জ  সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম রকিবুল হাসান,

সেবা গ্রহীতা সালাউদ্দিন খান বলেন, ঘরে বসে থেকেই খারিজের আবেদন, খাজনা চেক, সবকিছু দিতে পারি এতে আমাদের অনেক সময় বেঁচে যায়। সরকারি নির্ধারিত কত টাকা ফি এটাও অনলাইনে দেয়া আছে, আমরা আর প্রতারিত হই না কোথাও বেশি টাকা দেওয়া লাগে না,

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন,সিনিয়র সহকারী কমিশনার নুসরাত জাহান।এ সময় উপজেলার ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা, সেবা গ্রহীতা প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিক ও নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিতি ছিলেন।

আরও খবর



দু’দিনের ব্যবধানে হিলিতে দেশীয় পেঁয়াজ কেজিতে বেড়েছে ১০ টাকা

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১৭জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:আর মাত্র বাঁকি ১৩ দিন কোরবানী ঈদ। দিনাজপুরের হিলিতে দুদিনের ব্যবধানে দেশীয় পেঁয়াজ কেজিতে দাম বেড়েছে ১০ টাকা। দু’দিন আগে শনিবার (১ জুন) প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৭০ টাকা দরে। আর সোমবার (৩ জুন) প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা দরে। এতে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা। ক্রেতরা বলছেন,ঈদুল আজহার আগে ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। ব্যবসায়ীরা বলছেন,সরবরাহ কমে যাওয়ায় মোকামগুলোতেই দাম বেশি। এদিকে প্রায় ৫ মাস ৬ দিন বন্ধ থাকার পর ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। তবে রফতানিতে ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করায় পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ করে রেখেছেন বন্দররের আমদানিকারকরা। 

আজ সোমবার (৩ জুন) দুপুরে হিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দুই দিন আগে দেশীয় পেঁয়াজ ৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। এর দু’দিন যেতে না যেতেই তা বেড়ে দেশীয় পেঁয়াজের দাম ৮০ টাকা কেজিতে ওঠেছে। এখন সেই পেঁয়াজ কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে গেলো মাসের (১৪ মে) বিকেল ৬ টায় ভারতীয় একটি   ট্রাকে ৩০ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়। ব্যবসায়ীরা জানান, ৫৫০ মার্কিন ডলার রপ্তানীমূল্য ও ৪০ শতাংশ শুল্ক হার নির্ধারণ করেছে। এতে আমদানি করে লোশানের গুনতে হচ্ছে। তাই গত মাসের ৫ তারিখে আমদানির অনুমতি মিললেও আমদানি বন্ধ করে রাখা হয়েছে। 

হিলি বাজারের খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতা আবু তাহের বলেন, বেশি কিছু দিন আগে আমদানির খবরে দেশীয় পেঁয়াজের মোকামগুলোতে দাম ওঠা নামা করেছে। গতকাল রোববার (২ জুন) মোকামে পাইকারী পেঁয়াজ কিনেছি ৩ হাজার টাকা মন। এতে মোকামে কিনতেই ৭৫ টাকা কেজিতে পড়েছে। এরপর পরিবহন খরচ আছে। আজকে আমি ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি দেশীয় পেঁয়াজ। আর ভারত থেকে এক গাড়ি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছিল না। সেই পেঁয়াজগুলো আমরা ৬২ টাকা কেজি দরে কিনে খুচরা ৬৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি। 

হিলি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা ফরহাদ আলী বলেন,২ দিন আগেই  ৭০ টাকা কেজি দরে কিনেছি দেশীয় পেঁয়াজ। আর আজ কিনলাম ৮০ টাকা কেজি দরে। মাত্র দুদিনের ব্যবধানেই প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ১০ টাকা।

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন,ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিচ্ছে। ভারত থেকে পেঁয়াজ না আসার সুযোগে তারা দেশি পেঁয়াজের দাম ইচ্ছে মতো বাড়াচ্ছেন। দুই সপ্তাহ আগেও প্রকিকেজি পেঁয়াজ ৬০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। এরপর ভারত থেকে একদিন পেঁয়াজ এলে তারা দাম কমিয়ে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেন। 

হিলি স্থলবন্দর পেঁয়াজ আমদানিকারকরা জানান, ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর  ইতিমধ্যেই ২০ জন আমদানিকারক নতুন করে ২৭ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি পেয়েছেন। পেঁয়াজ রফতানিতে ভারত সরকারের আরোপ করা ৪০ শতাংশ শুল্ক এখনও অব্যাহত আছে। ৪০ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার না করলে পেঁয়াজ আমদানি করা সম্ভব হবে না। ৪০ শতাংশ শুল্ক পরিশোধ করে প্রতি কেজি পেঁয়াজ আমদানিতে অতিরিক্ত ২৫ টাকা গুনতে হবে। এতে করে বন্দরের চার্জসহ সব খরচ দিয়ে কেজি প্রতি পেঁয়াজের দাম পড়বে ৭০ টাকার ওপরে। বর্তমান দেশের বাজার অনুযায়ী ওই দামে পেঁয়াজ আমদানি করলে লোকসানের মুখে পড়তে হবে আমদানিকারদের। পেঁয়াজ আমদানি করলে ট্রাক প্রতি সাড়ে ৬ লাখ টাকার মতো লোকসান গুনতে হবে। তাই ক্ষতির আশঙ্কায় আমদানিকারকরা পেঁয়াজ আমদানিতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। 

আামদানিকারকরা আরও জানান,ভারত থেকে এক গাড়ি পেঁয়াজ আমদানি করে ক্রেতা না পাওয়ায় স্থানীয় বাজারের খুচরা বিক্রেতাদের কাছে ৬২ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হয়েছে। এতে অনেক টাকা লোকশান গুনতে হয়েছে।


আরও খবর