Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা
শীত তার আগমনী বার্তা পাঠিয়েছে প্রকৃতিতে

আসি আসি করছে শীত, কমছে তাপমাত্রা

প্রকাশিত:Monday ২৫ October ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

হেমন্তের এ সময়ে আসি আসি করছে শীত। ফলে দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমছে।  এরই মধ্যে গ্রামাঞ্চলে পড়তে শুরু করেছে কুয়াশা। শীতের কাপড় নিয়ে অনেককেই বিকেলে বের হতে দেখা যাচ্ছে। এমনকি রাজধানীতে সন্ধ্যায় অনেকের গায়ে শাল চোখে পড়ছে।

আবহাওয়া অফিস জানায়, গত কয়েকদিন ধরেই দিনের তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। আর রাতের তাপমাত্রা নেমে আসছে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। 

দেশে রোববার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে সীতাকুণ্ডে, ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায়, ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২২ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে সারাদিন কোথাও বৃষ্টি না হলেও আকাশ ছিল হালকা মেঘময়। আগামী দুদিনে এ অবস্থার কোনো পরিবর্তন দেখছে না আবহাওয়া অফিস। তবে বর্ধিত পাঁচদিনে হালকা পরিবর্তন হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। লঘুচাপটির বর্ধিতাংশটি উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এ অবস্থায় সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিভাগের দু এক জায়গায় অবস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে। তবে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

 

খবর প্রতিদিন / সি.বা 


আরও খবর



দলীয় পদ হারালেন আলোচিত চেয়ারম্যান সেলিম খান

প্রকাশিত:Saturday ০৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
Image

চাঁদপুরের আলোচিত লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেলিম খানকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শনিবার (৪ জুন) সকালে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্যের সর্বসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল জানান, দলের নিয়ম-শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তাকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।


আরও খবর



আড়াইহাজার-মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের ভূমি অধিগ্রহণের সময় বাড়ছে

প্রকাশিত:Friday ০৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার ও চট্টগ্রামের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ প্রকল্পের সময় ফের বাড়ছে। প্রকল্পটি জানুয়ারি ২০১৭ থেকে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ মেয়াদে বাস্তবায়নের কথা ছিল। এরপর দফায় দফায় সময় বাড়িয়েও বাস্তবায়ন হয়নি প্রকল্পটি। এবার প্রকল্প বাস্তবায়নে পরিকল্পনা কমিশনে ৩০ জুন ২০২৩ নাগাদ সময় বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা)। মূলত ব্যয় সমন্বয়সহ আনুষঙ্গিক কিছু কাজ সম্পন্ন করতেই অতিরিক্ত আরও ছয় মাস সময় বাড়ানোর এ আবেদন।

প্রকল্প সংশোধনের কারণ
প্রকল্পটি মোট ৩ হাজার ১৯৫ কোটি ৮১ লাখ টাকা ব্যয়ে জানুয়ারি ২০১৭ থেকে ডিসেম্বর ২০২২ মেয়াদে বাস্তবায়নের জন্য সংশোধিত ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব) অনুমোদন হয়। দ্বিতীয় সংশোধনী প্রস্তাবে প্রকল্প ব্যয় অপরিবর্তিত রেখে আন্তঃখাত সমন্বয় ও প্রস্তাবিত নতুন অঙ্গ সংযোজনের প্রস্তাব আসে। এর মধ্যে রয়েছে পরামর্শক ব্যয়, মুদ্রণ ও বাঁধাই, যাতায়াত ব্যয়, খাল খনন, সীমানা পিলার ও অফিস সরঞ্জামাদি অন্তর্ভুক্তিসহ বাস্তবায়ন মেয়াদকাল জুন ২০২৩ পর্যন্ত অর্থাৎ আরও ছয় মাস বাড়ানোর প্রস্তাব।

jagonews24

মেয়াদ ছয় মাস বাড়ায় প্রকল্পটির কয়েকটি রাজস্ব অঙ্গের ব্যয় যেমন পরামর্শক ব্যয় খাতে ৬ কোটি, জরিপ খাতে ১ কোটি ২৩ লাখ, মুদ্রণ ও বাঁধাই খাতে ২ লাখ, সম্মানী খাতে এক লাখ, যাতায়াত ব্যয় ৫০ হাজার, আপ্যায়ন ব্যয় এক লাখ, কম্পিউটার ও আনুষঙ্গিক ব্যয় ৫০ হাজার মিলিয়ে মোট ৭ কোটি ২৮ লাখ টাকা ব্যয় বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। অন্যদিকে যানবাহন ভাড়া বাবদ ৪ লাখ, তেল ও লুব্রিকেন্ট বাবদ এক লাখ, ফুয়েল/গ্যাস বাবদ ২ লাখ, স্ট্যাম্প ও সিল বাবদ ৫০ হাজার মিলিয়ে মোট ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয় কমবে। এসব বিষয় সমন্বয় করতেই আরও ছয় মাস সময় লাগবে।

এরই মধ্যে পরিকল্পনা কমিশনের শিল্প ও শক্তি বিভাগে প্রকল্পের প্রস্তাবনা পাঠিয়েছে বেজা। বেজার প্রস্তাবনায় প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির সভাও অনুষ্ঠিত হয়। প্রকল্পের বর্তমান অগ্রগতি ৭২ শতাংশ। শতভাগ বাস্তবায়নের জন্য তৃতীয় দফায় আরও ছয় মাস সময় আবেদন করা হয়েছে। এ সময়ে মূলত জমির মূল্য পরিশোধ ও আনুষঙ্গিক ব্যয় সমন্বয় করা হবে।

প্রকল্প পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) সালেহ আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, বর্তমানে প্রকল্পের অগ্রগতি ৭২ শতাংশ। আমরা সময়মতো ফান্ড পাইনি। সরকারি ফান্ড পেতে দেরি হওয়ায় প্রকল্প বাস্তবায়নে বাড়তি সময় লাগছে। এজন্য আরও ছয় মাস সময় চেয়েছি। ভূমি অধিগ্রহণের সীমানা পিলার ও বৃক্ষরোপণ করতে হবে। এছাড়া অধিগ্রহণ করা জমির কিছু খাল ভরাট হয়েছে, এগুলো ঠিক করতে হবে। এজন্য একটা পিক টাইম দরকার। কিছু ব্যয় সমন্বয় করতেও আমাদের বাড়তি সময় লাগবে।

jagonews24

প্রকল্পের মূল অংশের খাল খনন খাতে আট কোটি, সীমানা পিলারে পাঁচ কোটি, অফিস সরঞ্জামাদির জন্য চার লাখ, ভূমি অধিগ্রহণ/ক্রয় খাতে ২২৫ কোটি ৯ লাখ ৩১ হাজার মিলিয়ে মোট ২৩৮ কোটি ১৩ লাখ ৩১ হাজার টাকা ব্যয় বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

অন্যদিকে, ল্যান্ড স্ক্যাপিং খাতে আট কোটি ৬৪ লাখ ৬১ হাজার এবং প্রাইস কন্টিনজেন্সি খাতে ২৩৬ কোটি ৬৯ লাখ ২০ হাজার মিলিয়ে মোট ২৪৫ কোটি ৩৩ লাখ ৮১ হাজার টাকা ব্যয় হ্রাসের প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রস্তাবিত আন্তঃখাত সমন্বয় ও নতুন অঙ্গ অন্তর্ভুক্তিসহ বাস্তবায়ন মেয়াদকাল ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত (আরও ৬ মাস) বাড়ানোয় প্রথম সংশোধিত মোট প্রাক্কলিত ব্যয় ৩ হাজার ১৯৫ কোটি ৮১ লাখ টাকা (জিওবি) অপরিবর্তিত রয়েছে।

সুনির্দিষ্ট উদ্দেশ্য
জিটুজি (সরকার থেকে সরকার) ভিত্তিতে জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের জন্য আড়াইহাজার অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ, টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন পণ্য উৎপাদনের জন্য ভিন্ন ভিন্ন প্রকৃতির শিল্প স্থাপনের সুবিধা সম্প্রসারণ করা, জাপানিজ বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ আকর্ষণের অনুকূল পরিবেশ তৈরি, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন, দেশের সুষম অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন নিশ্চিত করা।

jagonews24

প্রকল্পের মূল কার্যক্রম
আড়াইহাজারে এক হাজার এক দশমিক ৮১ একর এবং মিরসরাইয়ে ৫০৫ একর ভূমি অধিগ্রহণ ও কেনা হবে। মিরসরাই এলাকায় ৪৩৫ একর ভূমি উন্নয়ন, ল্যাপটপ ও অফিস সরঞ্জামাদি কেনা, সীমানাপ্রাচীর নির্মাণ (ওয়াচ টাওয়ারসহ) ও পানি সংরক্ষণাগার নির্মাণ করা হবে।


আরও খবর



রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হাত-পা বাঁধা যুবকের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে মোহাম্মদ সমিন (৩০) নামের এক যুবকের হাত-পা বাঁধা রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)।

শুক্রবার (১০ জুন) দিনগত রাতে উপজেলার কুতুপালংয়ের ৪ নম্বর ক্যাম্প থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মোহাম্মদ সমিন ওই ক্যাম্পের মধুরছড়ার সি ব্লকের বাসিন্দা।

এপিবিএন সূত্র জানায়, ক্যাম্পের বাসিন্দারা সমিনকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে এপিবিএনকে খবর দেয়। পরে তাকে ক্যাম্পের হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার সারা শরীরে আঘাত ও পেটে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, সুরতহাল শেষে সমিনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। পরে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।


আরও খবর



মালয়েশিয়ায় অসামান্য অবদান সাইদুর রহমানের

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

মালয়েশিয়ায় অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন, বাংলাদেশি অধ্যাপক সাইদুর রহমান। ময়মনসিংহ জেলার কৃতি সন্তান হিসেবে পরিচিত সাইদুর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাবেক শিক্ষার্থী। মালয়েশিয়ায় মেধা ও প্রজ্ঞায় যারা নিজ দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছেন তাদের মধ্যে তিনিও একজন।

সাইদুরের গবেষণাপত্র বিশ্বের অন্যান্য গবেষকদের কাছে খুবই সমাদৃত। গবেষণার প্রভাব, কর্মক্ষমতা ও বিশ্বব্যাপী র‌্যাঙ্কিংয়ে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সম্প্রতি গুগল স্কলারের বিশ্লেষণ অনুসারে তার ১১৫টি গবেষণায় এইচ-ইনডেক্সসহ ৫০ হাজারেও বেশি উদ্ধৃতি দেওয়া হয়েছে। 

ওয়েব অব সাইন্স ন্যানোফ্লুয়েড গবেষণায় তিনি বিশ্বের গবেষকদের মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছেন বলে জানা গেছে। ২০১৪ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত তিনি বিশ্ব সেরা গবেষক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন তার গবেষণা ক্ষেত্রে শীর্ষ শতাংশ হওয়ার জন্য মালয়েশিয়ার উচ্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয় উদ্ধৃতি প্রভাবেও তার ব্যতিক্রমী অবদানের স্বীকৃতি দিয়েছে।

ইউনিভার্সিটি অব মালয় যা প্রিমিয়ার রিসার্চ ইউনিভার্সিটি তাকে অসামান্য অবদানের জন্য ২০১১-২০১৪ এর মধ্যে উদ্ধৃত গবেষকদের সম্মানিত করেছে।

সানওয়ে ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট প্রফেসর সিব্র্যান্ড পপ্পেমা প্রফেসর সাইদুরের উল্লেখযোগ্য অবদান তুলে ধরে বলেন, ২৪ ঘণ্টায় ৫০ হাজারের বেশি ভিউ হয়েছে। প্রেসিডেন্ট তার অসামান্য অবদানের জন্য গবেষণা সম্প্রদায় ও সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে তার জনপ্রিয়তাও তুলে ধরেন।

jagonews24

পাশাপাশি তার অসামান্য অবদানে মালয়েশিয়ায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ও প্রবাসীরা আনন্দিত। তারা বলছেন, অধ্যাপক সাইদুর রহমান বিদেশের মাটিতে নিজগুণে দেশকে পরিচিতি করছেন। অধ্যাপক সাইদুর আমাদের গর্ব।

সাইদুর রহমান ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে মালয়েশিয়ার সানওয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গবেষণায় পুরস্কারও পেয়েছেন।

তিনি ল্যাঙ্কাস্টারের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শক্তি প্রযুক্তি বিভাগ ও মালয়েশিয়ার সানওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যানোম্যাটরিয়ালস অ্যান্ড এনার্জি টেকনোলজির অধ্যাপক। ল্যাঙ্কাস্টার জরিপে ২০২০ সালের সেরা চারজন গবেষকের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে মালয়েশিয়ার সানওয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যানোমেটেরিয়ালস ও এনার্জি টেকনোলজির প্রফেসর ড. সাইদুর রহমান রয়েছেন সেরা চারে।

এক সাক্ষাতকারে সাইদুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, সঠিক গবেষণা কৌশল, গবেষণা সংস্থা ও তহবিল সংস্থার সমর্থনসহ, গবেষকরা উল্লেখযোগ্য উদ্ধৃতি এবং অন্যান্য গবেষণা প্রভাব তৈরি করতে পারেন। গবেষক/শিক্ষাবিদদের অত্যাধুনিক গবেষণার সঙ্গে বিশ্বব্যাপী বিশাল চ্যালেঞ্জিং গবেষণার ক্ষেত্রে কাজ করতে হবে, স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের কার্যকরভাবে তত্ত্বাবধান করতে হবে।

স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে সহযোগিতা করতে হবে, শীর্ষ মানের জার্নালে প্রকাশ করতে হবে, তহবিল খুঁজতে হবে, অত্যাধুনিক সরঞ্জামসহ গবেষণাগার স্থাপন করতে হবে। গবেষকদের তাদের যোগাযোগ, দল গঠন, নৈতিকতা, নেতৃত্ব ও জীবনব্যাপী শেখার দক্ষতাও উন্নত করতে হবে। গবেষণা সংস্থাগুলোকে তাদের গবেষকদের অর্থায়ন, গবেষণা প্রণোদনা, পুরস্কার, পদোন্নতি, প্রেরণা দিয়ে সহায়তা করতে হবে।

jagonews24

সাইদুর রহমান বলেন, বিশ্বায়নের এই যুগে দেশের খ্যাতি ও সুনামকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরার জন্য দেশকে ব্র্যান্ডিং করতে হবে। এই ব্র্যান্ডিংয়ের মানে হচ্ছে দেশের আলোকিত দিকগুলো বিশ্বের কাছে তুলে ধরা। ব্র্যান্ডিংয়ের সুফল হচ্ছে, দেশের ইতিবাচক ব্র্যান্ডিং খাড়া করতে পারলে সঙ্গে সঙ্গে দেশের জনশক্তি, পর্যটন, দেশে তৈরি পণ্য, বিনিয়োগ ও অন্যান্য সেবা ও মানুষের কাছে বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করে।

সরকার, রাজনৈতিক দল, গণমাধ্যম, দেশ ও প্রবাসের বাসিন্দা সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রায় এক কোটিরও বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। যারা দেশের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসাবে কাজ করতে পারেন। বিশ্বের জনশক্তির বাজারে শুধু শ্রমিক রপ্তানির কথা না ভেবে দক্ষ জনশক্তি পাঠানোর উদ্যোগ নিলে বাংলাদেশের ইমেজ বদলে যাবে।

তিনি আরও বলেন, সমস্যা আমাদের আছে ঠিকই, কিন্তু গন্তব্যস্থলে পৌঁছাতে হলে নীতিবাচক দিকগুলোকে পেছনে রেখে বিশ্বের কাছে দেশকে নিয়ে একটি সুন্দর বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। যা বাংলাদেশকে নিয়ে বিশ্বের দৃষ্টিভঙ্গি পুরোপুরি বদলে দেবে। প্রফেসর সাইদুর ন্যানোম্যাটেরিয়ালের ওপর গবেষণা করছেন এবং শক্তি সঞ্চয়, তাপ স্থানান্তর, সৌর শক্তি, শক্তি দক্ষতার ক্ষেত্রে তাদের প্রয়োগ করছেন।

অধ্যাপক সাইদুর বিজ্ঞানীদের সুবিধার জন্য অনলাইন সেমিনার, সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের মাধ্যমে তার ২৫ বছরের গবেষণার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন। এছাড়াও, তিনি অসহায় ও দরিদ্র তরুণ প্রতিভাবানদের সহযোগিতা করেন। অধ্যাপক সাইদুর ভবিষ্যতে আরও সামাজিক অবদান রাখার ইচ্ছা পোষণ করেন।


আরও খবর



হাঁস তাড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
Image

যশোরে হাঁস তাড়িয়ে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার হয়েছে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী। রোববার (১২ জুন) যশোর সদর উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়নের ভবানিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী কিশোরীকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত যুবকের নাম মো. মাহিম (২৭)। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক।

ধর্ষণের শিকার কিশোরী জানায়, রোববার বিকেলে সে বাড়ির পেছনে পুলের কাছ থেকে হাঁস তাড়িয়ে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় একই গ্রামের পান্নার ছেলে মাহিম মুখ চেপে ধরে তাকে পাশের পাটক্ষেতে নিয়ে যান। এরপর কোমল পানীয়র বোতলে থাকা কিছু একটা খাইয়ে দেন। মেয়েটি অচেতন হয়ে পড়লে তাকে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যান মাহিম। পরে জ্ঞান ফিরলে বাড়িতে ফিরে সে তার মাকে ঘটনাটি জানায়।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আব্দুস সামাদ বলেন, ‘মেয়েটিকে সেক্সুয়াল অ্যাসাল্ট হিসেবে ভর্তি করে গাইনি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে। আলামত (নমুনা) সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রতিবেদন এলে বিস্তারিত জানা যাবে।’

এ বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগীকে মামলা করতে বলা হয়েছে। ঘটনার সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর