Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

আমিরাতের আল আইন প্রবাসীদের সাথে মান্যবর রাষ্ট্রদূতের ইফতার মাহফিল

প্রকাশিত:Sunday ০১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৩৯জন দেখেছেন
Image

মোঃ শাজাহান খান,(আরব আমিরাত)

বাংলাদেশ দূতাবাস আবুধাবি  কর্তৃক  শুক্রবার মাহে পবিত্র রমজান উপলক্ষে    প্রবাসী বাংলাদেশীদের সম্মানে গ্রীন সিটি আল আইনে ৫ নম্বর সানাইয়া   আল আইন বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ শফিক সাহেবর বিল্ডিং এ  ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। 


উক্ত  অনুষ্ঠানের  সভাপতিত্ব করেন উক্ত অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক বঙ্গবন্ধু পরিষদ আল আইন কেন্দ্রীয় কমিটির    সভাপতি  মোহাম্মদ আলতাফ হোসেনের। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও মোনাজাত করেন আল আইন বঙ্গবন্ধু পরিষদের যুগ্ম  সম্পাদক জনাব ফজলুল করিম মাসুদ হাজারী। ইফতার উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব আল আইন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আইয়ুবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আবুধাবির বাংলাদেশ দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মোহাম্মদ আবু  জাফর সাহেব।

 

বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব মোহাম্মদ সালেহ আল কাসেমী,লেবার কাউন্সিলর আব্দুল আলীম মিয়া , লুৎফুন নাহার নাজিম (সচিব) মাজহারুল ইসলাম (তৃতীয় সচিব), বঙ্গবন্ধু পরিষদ আল আইন কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা  মোহাম্মদ শেখ ফরিদ আহমেদ সি,আই,পি।

 উত্তম কুমার হাওলাদার  সহ-সভাপতি জনাব জহিরুল ইসলাম,মোহাম্মদ রফিক 

, মোহাম্মদ আব্দুল কাদের সিদ্দিকী, মোহাম্মদ মনির হক টুটুল, 


হাফেজ শফিকুল আলম মানিক,মোহাম্মদ করিম,

আল আইন আওয়ামীলীগ এর সম্মানিত সভাপতি জনাব কাসাউদ্দিন,বি,সি,সি,আল আইনের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এ আর  মাকসুদ, ডাক্তার খান সি আই পি,  মোহাম্মদ ইউনুছ মিয়া সিআইপি, মোহাম্মদ আবু মনছুর,মোহাম্মদ সোলেয়মান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, মোহাম্মদ শেখ আহম্মদ,আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইউসুফ,মোহাম্মদ মোরশেদ মোহাম্মদ ফরিদ তালুকদার, 

এতে সার্বিক তথ্যাবধানে  মোহাম্মদ ইয়াকুব,সেকান্দর সান,মোহাম্মদ ফজলুল করিম মাসুদ হাজারী, মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন, আবুল খায়ের মিলন,

মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ টিপু, 

মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন। 

মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম নয়ন।, মোহাম্মদ সাহাজান,মোহাম্মদ হারুন,

মোহাম্মদ ইসলাম,মোহাম্মদ আলম, মোহাম্মদ আকবর,মোহাম্মদ নিজাম, 

মোহাম্মদ জুয়েল, মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান, মোহাম্মদ মহিউদ্দন 

মোহাম্মদ আলমগীর, মোহাম্মদ সেলিম, মোহাম্মদ মুসা, মোহাম্মদ ইব্রাহিম,  মোহাম্মদ ফরিদ ও মোহাম্মদ জাহেদ সহ অনেকে।



আরও খবর



পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ

সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত পদ্মা সেতু

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

সকল জল্পনা কল্পনা শেষে সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠেছে পদ্মা সেতু।পদ্মা সেতুর মূল অংশের পিচ ঢালাই শেষে বাকি ছিল দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। কর্মযজ্ঞের ধারাবাহিকতায় শেষ হয়েছে দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।


সোমবার (২৩ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সর্বশেষ জাজিরা অংশের সংযোগ সড়কের (সাউথ ভায়াডাক্ট) পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ করেন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও নির্মাণশ্রমিকরা।


পুরো সেতুর পিচ ঢালাই শেষ হওয়ায় এখন যানচলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়কপথ।পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, যান চলাচল উপযোগী করে তুলতে সেতুতে পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছিল গত বছরের ১০ নভেম্বর। পাঁচ মাস ১৯ দিনের মাথায় গত ২৯ এপ্রিল মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার অংশে সে কাজ শেষ হয়। এরপরই সমানতালে শুরু হয় দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।



বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়। সর্বশেষ জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই শেষ হলো আজ।


এদিকে সেতুর অবশিষ্ট কাজের মধ্যে রোড মার্কিং ও সেতুকে আলোকিত করতে বসানো ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে পুরোদমে। শুরু হয়েছে রেলিং বসানোর কাজ।



সূত্র জানায়, চলতি মাসের মধ্যেই শেষ হবে রোড মার্কিংয়ের কাজ। বিদ্যুৎ সংযোগের কাজও চলছে। পরিকল্পনা মতো কাজ এগুলোই নির্ধারিত সময় ১ জুনে জ্বলে উঠবে বাতিগুলো।



আরও খবর



ট্রাফিক ওয়ারী জোনের টিআই বিপ্লব ভৌমিকের কারনে বেঁচে গেল বাস যাত্রীদের প্রান

প্রকাশিত:Friday ০৬ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১১৭জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসান।।


 জুরাইন রেল ক্রসিংয়ের উপড় আটকে পড়া একটি বাস দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল ট্রাফিক ওয়ারী জোনের টিআই বিপ্লব ভৌমিক ও ট্রাফিক সদস্যদের কারণে।



 বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে বাহির হওয়ার পথে জুরাইন রেল ক্রসিংয়ে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে আটকা পড়ে আনন্দ পরিবহনের একটি বাস। ঠিক সেই মুহূর্তে রেলের বার পড়ে যায় কারণ নারায়ণগঞ্জ থেকে কমলাপুরে আসছিলো একটি কমিউটার ট্রেন। গাড়ির চালক বারবার চেষ্টা করেও স্টার্ট করতে পারছিলেন না । কিন্তু ডিএমপির ট্রাফিক পুলিশের ত্বরিৎ পদক্ষেপে রক্ষা পায় বাসে থাকা ৪০ যাত্রীর প্রাণ।


ডিএমপির ট্রাফিক ওয়ারী জোনের টিআই বিপ্লব ভৌমিক জানান, বৃহস্পতিবার (৫ মে ২০২২) সন্ধ্যা ০৬:৫০ টায় আনন্দ পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো ব ১১-৪০৩০) যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে জুরাইন রেল লাইনের উপর উঠা মাত্র বন্ধ হয়ে যায়।


চালক অনেক চেষ্টা করেও স্টার্ট করতে পারছিলেন না। আর ঠিক সেই মুহূর্তে নারায়ণগঞ্জ থেকে একটি কমিউটার ট্রেন ঢাকার দিকে আসছিলো।


তিনি বলেন, তাৎক্ষনিক কোন উপায় না পেয়ে তিনিসহ সঙ্গে থাকা এটিএসআই উওম কুমার দাস, ট্রাফিক পুলিশ সদস্য রমজান আলীসহ পথচারী ও অন্যান্য গাড়ির চালকদের সাথে নিয়ে ধাক্কা দিয়ে রেল লাইন পার করে দেন।


আর করার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই কমলাপুরগামী কমিউটার ট্রেনটি জুরাইন রেল ক্রসিং অতিক্রম করে। রক্ষা পায় বাসে থাকা ৪০ যাত্রীর প্রাণ।


জুরাইন রেল ক্রসিংয়ের গেইট ম্যান মো: হারুন মিয়াসহ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ট্রাফিক পুলিশের তাৎক্ষনিক পদক্ষেপের কারণে বাসের ভিতরে থাকা যাত্রীরা প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন এবং বড় ধরনের ক্ষতি এড়ানো সম্ভব হয়েছে।


ট্রাফিক পুলিশের দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণে বাসের যাত্রীসহ সাধারণ জনগণ ট্রাফিক পুলিশের ভূয়সী প্রশংসা করেন ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।




আরও খবর



ইউক্রেন যুদ্ধের ধাক্কা পড়েছে পণ্যের বাজারে

প্রকাশিত:Thursday ২৮ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১২৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে ইতোমধ্যেই বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন পণ্যের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনের দিনগুলোতে পণ্যের দাম আরও বাড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে বিশ্ব ব্যাংক সতর্ক করে বলেছে, ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে গত ৫০ বছরের মধ্যে বিশ্বের পণ্য বাজারে সবচেয়ে বড় ধাক্কা আসতে যাচ্ছে। অর্থাৎ ১৯৭০ সালের পর প্রথম বারের মতো এমন সংকট তৈরি হতে পারে।


নতুন এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সংঘাতের কারণে প্রাকৃতিক গ্যাস থেকে শুরু করে গম ও তুলা পর্যন্ত বিভিন্ন পণ্যের দাম ইতোমধ্যেই বেড়ে গেছে। সামনের দিনগুলোতে এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।


বিশ্ব ব্যাংকের নতুন এই প্রতিবেদনের সহ-লেখক পিটার ন্যাগল বলেন, পণ্যের দামের এই ঊর্ধ্বগতি এরইমধ্যে বড় ধরনের অর্থনৈতিক ও মানবিক প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে জীবনযাত্রার খরচ মেটাতে গিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়ছে মানুষ।


বিশ্ব ব্যাংকের এই শীর্ষ অর্থনীতিবিদ বলেন, গরীব পরিবারগুলোর ক্ষেত্রে এই সংকট আরও ভয়াবহ। কারণ তাদের আয়ের সিংহভাগ খাবার ও জ্বালানির পেছনে ব্যয় হয়ে যায়। পণ্যের দাম বাড়ার প্রভাব তাদের ওপরই সবচেয়ে বেশি পড়বে।


বিশ্ব ব্যাংক বলছে, জ্বালানির দাম ৫০ শতাংশের বেশি বাড়তে পারে। ফলে সংসারের ব্যয় এবং ব্যবসায়ের খরচ অনেক বেড়ে যাবে।



বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউরোপে সবচেয়ে বেশি বাড়বে প্রাকৃতিক গ্যাসের দাম, যা দ্বিগুণের বেশি হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী বছর পণ্যের দাম কিছুটা কমতে পারে এবং ২০২৪ সালের পূর্বাভাসে দেখা যাচ্ছে, গত বছরের তুলনায় ২০২৪ সালে গ্যাসের দাম ১৫ শতাংশ বেশি থাকবে।


বিশ্ব ব্যাংক বলছে, ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত বিশ্ব টানা ২৩ মাস জ্বালানির দামে ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে। মধ্যপ্রাচ্যে অস্থিরতার কারণে ১৯৭৩ সালে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির পর এটাই দীর্ঘতম সময় ধরে জ্বালানির দাম যাওয়ার ঘটনা।


একইভাবে জ্বালানি তেলের দামও ২০২৪ সাল পর্যন্ত বাড়তি থাকবে এবং চলতি বছরজুড়ে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম গড়ে ১০০ ডলারে বিক্রি হবে, যা বিশ্বজুড়ে মূল্যস্ফীতির হার বাড়ার অন্যতম কারণ হিসেবে ভূমিকা রাখবে।



বিশ্বের ১১ শতাংশ তেল উৎপাদন করে রাশিয়া, যা তৃতীয় সর্বোচ্চ। বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে যুদ্ধের কারণে সরবরাহে বিঘ্ন ঘটা এবং পশ্চিমা অবরোধের ফলে একটি দীর্ঘমেয়াদী নেতিবাচক প্রভাব দেখা দেবে। অবরোধের কারণে পশ্চিমা কোম্পানিগুলো রাশিয়া ছেড়ে যাবে এবং দেশটির নতুন প্রযুক্তি পাওয়ার সুযোগ কমে আসবে।


রাশিয়া বর্তমানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের চাহিদার ৪০ শতাংশ গ্যাস ও ২৭ শতাংশ তেল সরবরাহ করে। কিন্তু ইইউ রাশিয়ার ওপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে বিকল্প উৎস থেকে জ্বালানি চাহিদা পূরণের চেষ্টা করছে, যা বিশ্বজুড়ে তেল এবং গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। মূলত চাহিদা ও সরবরাহ ভারসাম্য নষ্ট হওয়ায় সমস্যা বেড়ে যাচ্ছে।


অনেক খাদ্য পণ্যের দাম হঠাৎ করেই লাফিয়ে বেড়ে গেছে এবং আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। গমের দাম ৪২ দশমিক ৭ শতাংশ বাড়তে পারে। খাদ্য পণ্যের মধ্যে বার্লি ৩৩ দশমিক ৩ শতাংশ, সয়াবিন ২০ শতাংশ, ভোজ্য তেল ২৯ দশমিক ৮ শতাংশ ও মুরগির দাম ৪১ দশমিক ৮ শতাংশ বাড়তে পারে। রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে এসব পণ্যের রপ্তানি কমে যাওয়ার কারণেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।


যুদ্ধ শুরুর আগে বিশ্বের মোট সয়াবিনের ৬০ শতাংশ এবং গম রপ্তানির ২৮ দশমিক ৯ শতাংশ এ দুই দেশ থেকেই আসতো। সার, বিভিন্ন ধাতু ও খনিজ দ্রব্যের মতো কাঁচামালের দামও বাড়তে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে। তবে কাঠ, চা ও চালের মত কয়েকটি পণ্যের দাম কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।


আরও খবর



১৭৪ রানে অপরাজিত

ডাবল সেঞ্চুরি মিস হলো মুশফিকের

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

স্পোর্টস রিপোর্টারঃ

মুশফিকুর রহিম একাই লড়াই করছিলেন। ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ডাবল সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু এগার নম্বর ব্যাটার এবাদত হোসেনকে স্ট্রাইক দেবেন না বলে ডাবলস নিতে গিয়েই বাধলো বিপত্তি।


ননস্ট্রাইকে রানআউট হয়ে গেলেন এবাদত। মুশফিকের ডাবলের স্বপ্ন পূরণ হলো না, ১৭৪ রানে অপরাজিতই থেকে গেলেন। ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে ৩৬৫ রানে।


আরও খবর



বিদ্যুতায়িত হয়ে দুজনের মৃত্যু

চলন্ত ভ্যানে বিদ্যুতের তার ছিড়ে চালকসহ দুইজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ


ময়মনসিংহে চলন্ত ভ্যানগাড়িতে বিদ্যুতের তার ছিড়ে পড়ে চালকসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।শনিবার (২১ মে) সকাল ৭টার দিকে মহানগরীর ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের চাইনামোড় এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।


নিহতদের একজনের নাম মিন্টু মিয়া (৩৫)। তিনি নগরের পিতাচর ঈশ্বরদিয়া এলাকার হারুন-অর-রশিদের ছেলে। অপরজনের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।


ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আতিকুর রহমান জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি বলেন, ভ্যানগাড়ির চালক একজন যাত্রী নিয়ে চাইনামোড় এলাকা দিয়ে যাচ্ছিলেন। ওই সময় বিদ্যুতের তার ছিড়ে গাড়িটি উল্টে মিন্টু মিয়া তারে জড়িয়ে ছটফট করতে থাকেন। এসময় ভ্যানচালক মিন্টুকে বাঁচাতে গিয়ে তিনিও বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে যান। এতে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান।


ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা আরও বলেন, পরে স্থানীয়রা ফায়ার স্টেশনে খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ কাজ করছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর