Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আছাদুজ্জামান মিয়ার ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস করায় বরখাস্ত গাজীপুরের এডিসি জিসানুল হক

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃ 

ডিএমপির সাবেক পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার জাতীয় পরিচয়পত্রসহ স্পর্শকাতর তথ্য সরবরাহের অভিযোগে গাজীপুরের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার জিসানুল হককে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।সোমবার (২৪ জুন) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনে এই আদেশ জারি করা হয়। এর আগে সাবেক ডিএম‌পির কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়ার ব্যক্তিগত তথ্য অনলাইন ও সাংবাদিকদের কাছে যাওয়া নি‌য়ে তদন্ত শুরু হয়।

এ ঘটনায় ওই অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনারসহ একজন এসআই ও এএসআইসহ তিনজনকে অভিযুক্ত করা হয়। পরে ওই অতিরিক্ত উপকমিশনারকে সাময়িক বরখাস্ত করে রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করার জন্য পুলিশ সদর দপ্তর থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এ প্রেক্ষিতেই তা‌কে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হ‌য়ে‌ছে।


প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, জিসানুল হক (বিপি-৮৫১৪১৬৬৩৩১), অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, সিটিএসবি অ্যান্ড প্রটেকশন বিভাগ, জিএমপি, গাজীপুর-এর বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা পরিপন্থি কর্মকাণ্ডে জড়িত হওয়ার অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮ এর ধারা ৩৯(১) এবং সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর বিধি ১২(১) অনুযায়ী অভিযুক্তকে সরকারি চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা সমীচীন মর্মে বিবেচিত হওয়ায় তাকে সরকারি সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।


এতে আরও বলা হয়েছে, তিনি বাংলাদেশ সার্ভিস রুল (বি.এস.আর) পার্ট-১, বিধি-৭১ মোতাবেক খোরপোষ ভাতা প্রাপ্য হবেন; এবং ০৩। জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।


এর আগে, ১৯ জুন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগে জিসানুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করার সুপারিশ করে একটি চিঠি দেয় পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স। এতে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।


আরও খবর



ফকিরহাটে পৃথক ঘটনায় শিশুসহ নিহত দুই আহত সাত জন

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

ফটিক ব্যানার্জী,ফকিরহাট (বাগেরহাট) সংবাদদাতা:বাগেরহাটের ফকিরহাটে যাত্রীবাহী বাসের সাথে মটরসাইকেলের মুখোমুখি সংর্ঘষের ঘটনায় শিশু সহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এসময় মরটসাইকেলে থাকা এক নারী গুরুত্বর আহত হয়েছেন। শনিবার সাকাল ৯টায় খুলনা-বাগেরহাট মহাসড়কের ধরের ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, পটুয়াখালী থেকে  মটরসাইকেল যোগে তিন আরোহী যশোর গদখালী এলাকায় যাচ্ছিলেন। ফকিরহাট উপজেলার মাহদেবেরে দোকান নামক স্থালে এসে পৌছালে বিপরীত দিক থেকে বাগেরহাটগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে।

এতে বাসের চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে মটরসাইকেল চালক খলিলুর রহমান (৪৫) এবং তার এক বছরের শিশুপুত্র ঘটনাস্থলে নিহত হন। এসময় নিহত খলিলুর রহমানের স্ত্রী মিনু বেগম (৩৫) গুরুত্বর আহত হন। তিনি আশংকাজনক বলে চিকিৎসকরা জানান।

খবর পেয়ে হাইওয়ে থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে মরদেহ উদ্ধার করেন।  

কাটাখালী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, বাসের সাথে মটরসাইকেলে সংঘর্ষে বাবা ও ছেলে ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছেন। তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আইনী প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।

অপরদিকে, একইদিন সকাল ১০টার দিকে খুলনা-ঢাকা মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার কানার পুকুর নামক এলাকায় বাসের ধাক্কায় মটরসাইকেল আরোহী ও ভ্যান যাত্রীসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। তারা হলেন সজিব শেখ (১৯), মোঃ সাদেক (১৮), মোঃ আল-আমিন (১৮), আসমা বেগম (৫৫) মোঃ ছালাম (৪০) এবং শিশু জারিন খাতুন (১১)। আহতরা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা। বিময়টি নিশ্চিত করেন ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মোঃ আশরাফুল আলম।


আরও খবর



ফকিরহাটে কুখ্যাত সন্ত্রাসী ইমরান বিপুল পরিমানে আগ্নেয়াস্ত্র সহ আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৭জন দেখেছেন

Image

ফটিক ব্যানার্জী,ফকিরহাট(বাগেরহাট)সংবাদদাতা:বাগেরহাটের ফকিরহাটে কুখ্যাত সন্ত্রাসী ইমরানকে পিস্তল গুলি ও বিপুল পরিমানে দেশিয় অস্ত্র সহ আটক করেছে ফকিরহাট মডেল থানা পুলিশ। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাসেলুর রহমান মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় প্রেস ব্রিফিংয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফকিরহাটের লখপুর ইউনিয়নের ছোট খাজুরা এলাকার গ্রামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৩০টি মামলার পলাতক আসামী মৃত হযরত আলীর পুত্র মোঃ ইমরান শেখ(৩৫) কে বিপুল পরিমানে অস্ত্রসহ আটক করা হয়। এসময় তার কাছে ও ঘরের বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশী চলিয়ে ১টি পিস্তল, ৫ রাউন্ড বন্দুকের গুলি, ১টি চায়না রাইফেলের গুলি, ১টি বার্মিজ চাকু, ১টি কাঠের বাটের চাকু, ১টি তালা কাটার, ২টি কাটিং প্লাস, ১টি পাইপ রেঞ্জ ও ২টি দা উদ্ধার করা হয়। 

ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আশরাফুল আলম বলেন, ইমরান শেখের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। এছাড়াও তার নামে ফকিরহাট সহ বিভিন্ন থানায় ৪টি ডাকাতি, ৬টি দস্যুতা, ৩টি চুরি, ৩টি বিস্ফোরক আইনে মামলা, ১টি চাঁদাবাজি, ৭টি মাদক, ১টি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা সহ মোট ৩০টি মামলা আছে।


আরও খবর



ফুলবাড়ীতে আতিকুর রহমান এর পৈত্রিক সম্পত্তি প্রতিপক্ষের দখলের চেষ্টা ও ভাংচুর

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৮৯জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার আলাদীপুর ইউনিয়নের আলাদীপুর পাটোয়ারিপাড়া রাঙ্গামাটিতে আতিকুর রহমানের পৈত্রিক সম্পত্তি প্রতিপক্ষ গোলাম মোস্তফা গংরা দখলের চেষ্টা ও ঘর ভাংচুর ও ক্ষতিসাধন করে। 

ফুলবাড়ী উপজেলার আলাদীপুর পাটোয়ারিপাড়া গ্রামের সহিদুল রহমানের পুত্র মোঃ আতিকুর রহমান (৩৩) এর গত ২৭/০৬/২০২৪ইং তারিখে ফুলবাড়ী থানায় দায়েরকৃত অভিযোগসূত্রে জানা যায়, মোঃ গোলাম মোস্তফা, পিতা- জান্নাত আলী, মোঃ ইসমাইল হোসেন, পিতা- গোলাম মোস্তফা, উভয়ের সাং- বলিহারপুর, মোঃ শাহাদৎ আলী সাঈদ, পিতা- অজ্ঞাত, সাং- আলাদীপুর পাটোয়ারিপাড়া, উপজেলা ফুলবাড়ী, জেলা- দিনাজপুর। তারা গত ২৭/০৪/২০২৪ইং তারিখে দুপুর আড়াইটায় আলাদীপুর ইউপির রাঙ্গামাটি বাজার সংলগ্ন খতিয়ান নং-৫৫২, ডিপি নং-৫১১, এস-এ: ১৫৪, নতুন-৩৬০, ৩০ শতাংশ জমিতে নির্মাণ কাজ করছিলেন জমির মালিক মোঃ আতিকুর রহমান, এমতবস্থায় উল্লেখ্য ব্যক্তিরা লাঠিসোটা নিয়ে জমিতে গিয়ে গিয়ে অতর্কিত হামলা করে এবং জমিতে থাকা ১৫০টি মেহগনির চারা, ১টি টিনের ঘর, জমির সাইনবোর্ড, টিনের গ্রিলের তৈরি সদর দরজা ভাংচুর করে চলে যান। এতে আতিকুর রহমানের প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। এই ঘটনায় আতিকুর রহমান ঐ দিনেই ৪জনকে আসামি করে ফুলবাড়ী থানায় ১টি অভিযোগ দায়ের করেন। উক্ত জমি নিয়ে মোঃ আজিজুল ইসলামের সহিত বিরোধ চলছিল। 

উল্লেখ্য যে, আতিকুর রহমানের দাদা ১৯৬৭ সালে তার পিতার নাবালক থাকাকালীন সময় রেকর্ডীয় মালিক মোঃ গিয়াস উদ্দীনের কাছ থেকে জমিটি ক্রয় করেন। পরবর্তীতে দীর্ঘদিন খাজনা বাকি থাকলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার বাবার নামে নিলাম ইশতেহার জারি করে এবং সার্টিফিকেট মামলা দায়ের করলে তার পিতা ৩৪ বছরের খাজনা পরিশোধ করেন। উক্ত সম্পত্তি তার পিতা সহিদুর রহমান দেনমোহর বাবদ তার মাকে লিখে দেন। কিন্তু জমিটি লিখে দেওয়ার আগে গোলাম মোস্তফার কাছে বন্ধক রাখে। কিন্তু তার মাকে লিখে দেওয়ার পর গোলাম মোস্তফা জমিটি না ছাড়তে চাইলে তার মা ২০১৬ সালে স্বত্ত্ব দাবি করে আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলাটি চলমান অবস্থায় ২০২২ সালে ঐ এলাকার কিছু ভূমিদস্যু, দাদন ব্যবসায়ী পেশি শক্তি ব্যবহার করে জাল দলিল সৃষ্টি করে। উক্ত দলিলে তার মায়ের ডিপি খতিয়ান ৫১১ ব্যবহার করে। যাহা ফৌজদারি অপরাধ। এই ঘটনায় এলাকার সিরাজুল ইসলাম জানান, জমিটি তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। যারা দখল করতে এসেছিল তারা ভূমিদস্যু। একইভাবে এনামুল হক জানান, জমিটি দীর্ঘদিন যাবৎ গোলাম মোস্তফার কাছে বন্ধক রেখেছিলেন শহিদুর রহমান, কিন্তু বর্তমানে জাল দলিল সৃষ্টি করে গোলাম মোস্তফা সেই জমির মালিক সাজার চেষ্টা করছে। এই ঘটনায় ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জমিটি এমতবস্থায় আতিকুর রহমান তার মায়ের সম্পত্তি রক্ষার্থে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আরও খবর



বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন জানিয়েছেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহ চালু করার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে বলে।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সংসদে টেবিলে উপস্থাপিত সরকারি দলের সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৩৯৭টি। বন্ধ থাকা শিল্প প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিসিকের নিয়ন্ত্রণাধীন রুগ্ণ/বন্ধ শিল্প ৩৮২টি, বিসিআইসির নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ ৫টি, বিএসএফআইসির নিয়ন্ত্রণাধীন স্থগিত চিনিকল ৬টি, বিএসইসির ৪টিসহ মোট ৩৯৭টি। সরকারের গৃহীত পদক্ষেপে চলতি অর্থবছরে ১২৩টি বন্ধ/রুগ্ণ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালু হয়েছে।

স্বতন্ত্র সদস্য আব্দুল কাদের আজাদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার আন্তর্জাতিক ও বহুজাতিক কোম্পানিকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আকৃষ্ট করাসহ বিনিয়োগ সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষে ২০০৯ থেকে ২০২৩ সময়কাল পর্যন্ত সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং সাফল্যও এসেছে।

নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, বিসিকের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৫টি শিল্পনগরী, ৩টি শিল্পপার্ক ও ২টি অন্যান্যসহ মোট ১০টি প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়িত হলে ৩ হাজার ৮১১টি শিল্প প্লটে সম্ভাব্য ৩ হাজার ৫৬৫টি শিল্প ইউনিট স্থাপিত হবে। ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে আরএডিপিতে সবুজপাতাভুক্ত ১১টি প্রকল্প রয়েছে।

তিনি বলেন, বিনিয়োগে উৎসাহিতকরণের লক্ষে বিসিক কর্তৃক ১২২টি শিল্প প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে ১৬৭টি শিল্প পল্ট বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। বিসিক উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগে উৎসাহিত করার লক্ষে হোসিয়ারি শিল্পনগরী, পঞ্চবটি, নারায়ণগঞ্জ, জামদানি শিল্পনগরী, তারাবো, নারায়ণগঞ্জ, চামড়া শিল্পনগরী, সাভার, ঢাকা; এপিআই শিল্পপার্ক, গজারিয়া, মুন্সিগঞ্জ এবং বিসিক বৈদ্যুতিক পণ্য উৎপাদন ও হালকা প্রকৌশল শিল্পনগরী, মুন্সিগঞ্জ শীর্ষক বিশেষায়িত শিল্পনগরী/শিল্পপার্ক বাস্তবায়িত হয়েছে।


আরও খবর



যশোরে বিধবা নারীর মাটি চাপা দেয়া লাশ উদ্ধার, পুলিশ ৩জনকে হেফাজতে নিয়েছে

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরে বিধবা নারীর মাটি চাপা দেয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত বিধবা সোনাবানু(৪০)র বাড়ী যশোর সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের সন্ন্যাসী বটতলা গ্রামে।

আজ শুক্রবার বিকেলে সন্ন্যাসী বটতলা গ্রামের একটি বাগানের ভিতর থেকে মাটি খুড়ে ওই বিধবা নারীর মরদেহটি উদ্ধার করেছে যশোর কোতোয়ালী থানার পুলিশ। এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে ।

হত্যার শিকার নারীর স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন সোনাবানু। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে আজ শুক্রবার দুপুরে নিহতের বাড়ির কিছু দূরে একটি বাগানের ভিতর ছড়ানো ছিটানো মাটি দেখতে পান তারা। পুলিশে খবর দিলে মাটি খুড়ে একটি ছোট গর্ত থেকে সোনাবানুর মরদেহ উদ্ধার করেন। মরদেহের গলায় ওড়না পেচোনো ছিলো। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহতের স্বজনদের দাবি, সোনাবানু স্বামী মারা যাবার পর এক সন্তান নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সেই স্বামীর আগের ঘরের স্ত্রী সন্তান ছিলো। দ্বিতীয় স্বামীর ঘরে সোনাবানুর আরও দুটি সন্তান হয়। দ্বিতীয় স্বামী মারা যাওয়ার পর সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে নিজ ছেলে ও সতীনের ছেলের সাথে বিরোধ শুরু হয়। ওই জমির বিরোধ নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে যশোর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক জানান,প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায়  জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এলাকার আরিফ হোসেন ও তার স্ত্রী ইভাসহ তিনজনকে থানা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিয়েছেন। তদন্ত চলছে, শিগগির রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন তিনি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর