Logo
আজঃ Wednesday ০৮ December ২০২১
শিরোনাম
নৌকা পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হলো তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু! তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা কুমিল্লায় নৌকা পেয়েও সরে দাড়ালেন বাহালুল, প্রাথমিক সদস্য না হয়েও মনোনীত নূরুল! মাতুয়াইলে সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্ধোধন করলেন সংসদ সদস্য কাজী মনু পলো উৎসবে মাছ ধরায় মেতেছে মানুষ, চির চেনা বাংলা গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি হয়নি হাফ পাসের সিদ্ধান্ত,টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত কুমিল্লার তিতাস ও মেঘনা উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী যারা !
প্রভার নতুন ভিডিও

আবারো আলোচনায় প্রভা

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ১৬৬জন দেখেছেন
বিনোদন ডেস্ক

Image



অভিনয়ের মানুষ হিসেবেই পরিচিত মডেল-অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভা। এবার কণ্ঠশিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলেন আলোচিত এই অভিনেত্রী। মৌসুমী ভৌমিকের গাওয়া ‘আমি শুনেছি সেদিন তুমি’ শিরোনামের শ্রোতাপ্রিয় গানটি কাভার করেছেন তিনি। এ গানের সংগীতায়োজন করেছেন ইমরান মাহমুদুল। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে এটি।

 

গানটি নিয়ে নির্মিত হয়েছে মিউজিক ভিডিও। কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ধারণ করা হয়েছে ভিডিও চিত্রটি। গানটি মুক্তির পর থেকে দারুণ প্রশংসা কুড়াচ্ছেন প্রভা।

কাজী জিয়াউদ্দিন লিখেছেন, খুবই দরদ দিয়ে গাওয়া গান, ভালো লেগেছে। প্রভার গানের গলা ভালো জানা ছিল না, তাই অবাক লেগেছে বৈকি! দেখতে সুন্দর একজন মানুষ যার গানের কণ্ঠ ভালো, তিনি দেশের একজন সম্পদ বটে। শুভ কামনা প্রভা!আরো নতুন গানের দাবি জানিয়ে ইমতিয়াজ আহমেদ লিখেছেন, মন ছুয়ে যাওয়ার মতো একটি গান, এমন কাজ আরো চাই।

 

বিস্ময় প্রকাশ করে তানিয়া আহমেদ লিখেছেন, এটা প্রভার গলা? অসম্ভব! এত সুন্দর গলা থাকতে আপনি গান করেন না? এমন অসংখ‌্য মন্তব‌্যে ভরে আছে কমেন্ট বক্স।

হঠাৎ কণ্ঠে গান তোলার পেছনের গল্প জানিয়ে প্রভা বলেন, ইমরান ও আমি খুব ভালো বন্ধু। একসঙ্গে আড্ডা দিই। আড্ডায় গুনগুন করে গান গাওয়ার অভ‌্যাস আমার। একদিন আমার গান শুনে ইমরান বলল, চল দোস্ত, তোর গান রেকর্ড করি। এভাবেই গানটিতে কণ্ঠ দেওয়া।

 

গান রেকর্ডিংয়ের অভিজ্ঞতা জানিয়ে প্রভা বলেন- স্টুডিওতে ইনস্ট্রুমেন্টের সামনে দাঁড়িয়ে গান গাওয়ার সময়ে নার্ভাস লাগছিল। আমার মনে হয়, গানের ব্যাপারটা পুরোপুরি গড গিফটেড একটা ব্যাপার। আগে মনে হতো, এক দিনে বুঝি অনেকগুলো গান রেকর্ড করে ফেলা যায়। কিন্তু মাইক্রোফোনের সামনে দাঁড়িয়ে আমার সব ভুল প্রমাণিত হয়েছে। ইমরান ছাড়া অন্য কেউ গানটি রেকর্ড করতে গেলে ধৈর্য হারিয়ে ফেলত। বন্ধু হওয়াতে বেস্ট উপায়ে আমার গানটা রেকর্ড করিয়ে নিয়েছে।

ছোটবেলায় প্রভার মা চাইতেন মেয়ে গান শিখুক। কিন্তু তাতে আগ্রহ কম ছিল প্রভার। গানের প্র্যাকটিসে বসে ফাঁকি দিতেন তিনি। বিষয়টি উল্লেখ করে প্রভা বলেন- আমি অনেক ফাঁকিবাজ। তাই গানের প্র্যাকটিস বেশি করা হতো না। গানের অনুষ্ঠানের দিন বলতাম, আমি উপস্থাপনা করি? তবে খালি গলায় বেশি ভালো গাই।

-খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:Saturday ২৭ November ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ December ২০২১ | ১১১জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যথেষ্ট শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।শনিবার হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ আয়োজিত ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী হেফাজতে ইসলাম নিয়ে ভাবেন। একজন ধার্মিক মুসলিম হিসেবে শেখ হাসিনা রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন। তিনি সকালে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত করে কাজ শুরু করেন। আলেম-ওলামাদের প্রতি তার যথেষ্ট শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে। আপনাদের মতো প্রধানমন্ত্রী শফী সাহেবকে (শাহ আহমদ শফী) অত্যন্ত ভালোবাসতেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনারা বলেছেন হেফাজত অরাজনৈতিক দল, হেফাজত রাজনীতি করে না, নির্বাচনে যায় না। কিন্তু বাইরে থেকে দুষ্কৃতিকারীরা এসে আপনাদের অপবাদ অথবা কুমন্ত্রণা দিচ্ছে। সেখানে আপনারা ভুল করছেন অথবা ভুল করে ফেলেছেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, আমরা বারবার বলতে চাই আপনারা আধ্যাত্মিক লাইনের চর্চা করেন, কোরআন-সুন্নাহ অনুযায়ী চলেন। আপনারা যেহেতু অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান, সেহেতু কেন আপনাদের মাঝে বহিরাগতদের অনুপ্রবেশ ঘটে? আপনাদের আরো সাবধান হওয়া উচিত।

সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন- হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর শাহ মুহিববুল্লাহ বাবুনগরী, মহাসচিব নুরুল ইসলাম।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- আতাউল্লাহ হাফেজ্জি, অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, সাজিদুর রহমান, ইয়াহইয়া, তাজুল ইসলাম, আব্দুল আওয়াল প্রমুখ।

 

-খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



মুরাদ পদত্যাগপত্রে যা লিখেছেন

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ২৫জন দেখেছেন
Image

অশ্লীল ফোনালাপ ফাঁসের পর দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়া তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান পদত্যাগ করেছেন। আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টার পর ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন তিনি। বর্তমানে পদত্যাগপত্রটি মন্ত্রণালয়ের সচিবের দপ্তরে রয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা।

পদত্যাগপত্রে ডা. মো. মুরাদ হাসান কী লিখেছেন তা দৈনিক আমাদের সময়ের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

প্রধানমন্ত্রীকে সালাম জানিয়ে ডা. মুরাদ হাসান পদত্যাগপত্রে লিখেছেন, ‘মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের গত ১৯ মে ২০২১ তারিখে আমাকে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করা হয়। আমি ৭ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখ হতে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব হতে ব্যক্তিগত কারণে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করতে ইচ্ছুক।

এমতাবস্থায়, আপনার নিকট বিনীত নিবেদন এই যে, আমাকে ৭ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখ থেকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব হতে অব্যাহতি প্রদানের লক্ষ্যে পদত্যাগপত্রটি গ্রহণে আপনার একান্ত মর্জি কামনা করছি। '

এদিকে, আজ দুপুর ১টার দিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে ক্ষমাও প্রার্থনা করেছেন ডা. মুরাদ হাসান। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যেকোনো সিদ্ধান্ত আজীবন মেনে নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথাও জানান তিনি। 

সম্প্রতি একটি ভার্চুয়াল টকশোতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন ডা. মুরাদ। এরপর তার সমালোচনা করেন অনেকে। শুধু তাই নয়, তার পদত্যাগেরও দাবি ওঠে।

এ ছাড়া ডা. মুরাদ হাসান ও ঢালিউডের এক চিত্রনায়িকার মধ্যকার কথোপকথনের কল রেকর্ড ফাঁস হয়। যা ইতোমধ্যে টক অব দ্য কান্ট্রিতে পরিণত হয়েছে। অডিও ক্লিপটিতে শোনা যায়, ওই নায়িকাকে তাৎক্ষণিক তার কাছে যেতে বলছেন মুরাদ। নায়িকা এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও হুমকি দেন প্রতিমন্ত্রী। এর পরই সরকারের উচ্চপর্যায়ে মুরাদ হাসানের পদত্যাগের বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



কুমিল্লায় প্রকাশ্যে শিয়াল জবাই করে মাংস বিক্রি

প্রকাশিত:Thursday ১১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ December ২০২১ | ৩৯২জন দেখেছেন
Image


 

কুমিল্লার লাকসামে প্রকাশ্যে শিয়ালের মাংস বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (১০ নভেম্বর) বিকেলে শহরের রাজঘাট এলাকায় এমন দৃশ্য দেখা যায়। এরপর থেকে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ফেসবুকে ঘুরপাক খাচ্ছে।

 

স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার সকালে লাকসাম রেললাইন এলাকায় একটি শিয়াল বিক্রি করার জন্য চট্টগ্রাম থেকে আসেন দুই যুবক। খবর পেয়ে পৌরশহরের রাজঘাট এলাকার বাসিন্দা সাইফুল, মরণ ও লিটনসহ কয়েক যুবক মিলে তাদের কাছ থেকে দেড় হাজার টাকা দিয়ে শিয়ালটি কিনে নেন। বিকেলে রাজঘাট ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে শিয়ালটি জবাই করা হয়। এজন্য স্থানীয় কসাই জিয়াকে ১৫০ টাকা দেওয়া হয়। শিয়ালটি জবাই করার দৃশ্য কেউ একজন মোবাইলে ভিডিও করে। পরে সেই ভিডিও ভাইরাল হয়।

 

ভিডিওতে দেখা যায়, সাইফুল, মরণ ও লিটনসহ কয়েকজন যুবক শিয়াল জবাই করে মাংস বিক্রির স্থানের বর্ণনা দেন। ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে শিয়ালের মাংসের নানা উপকারিতার কথা উল্লেখ করেন। প্রতি কেজি মাংসের দাম ১০০০ টাকা বলে জানানো হয় ভিডিওতে। খবর পেয়ে কয়েকজন সেই মাংস কিনে নেন। এরপরই শিয়ালের মাংস বিক্রেতারা সটকে পড়েন।

 

লাকসামের ইউএনও এ কে এম সাইফুল আলম বলেন, বন্যপ্রাণী জবাই করে মাংস বিক্রি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  খবর প্রতিদিন- সি/বা

নিউজ ট্যাগ: শিয়াল জবাই

আরও খবর



রাজধানীর কদমতলী রায়েরবাগে কাঠের ভুসি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ৪ কারখানা বশীভূত।

প্রকাশিত:Sunday ০৫ December ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ December ২০২১ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

 


নিজস্ব প্রতিনিধি।

ঢাকা মহাসড়কে রায়েরবাগ এলাকায় ৪ টি কয়েল তৈরীর কাঁচামাল কাঠের ভূসির কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। প্রায় দুই ঘন্টা প্রচেষ্টার ফলে ফায়ার সার্ভিসের ৮ টি ইউনিট আগুন নেভাতে সক্ষম হয়েছে। 

রবিবার (৫ ডিসেম্বর) রাত ১ঃ৩০ মিনিটে এ আগুনের লাগার ঘটনা ঘটে। 

এ ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে তাহের এন্টারপ্রাইজ আলমগীর এন্টারপ্রাইজ,মোফাজ্জেল হোসেন এন্টারপ্রাইজ ও  মোঃ শহিদ এন্টারপ্রাইজ নামে ৪ টি কারখানা পুড়ে ছাই হয়ে যায়।


তাহের এন্টারপ্রাইজের একজন মহিলা শ্রমিক বলেন রাত আনুমানিক ১ঃ৩০ আমরা ১২ জন শ্রমিক কাজ করছি এসময় হঠাৎ করে আগুন আগুন বলে চিৎকার করলে আমরা বেরিয়ে পড়ি। এসময় মুহুতর্র ভিতর দেখি চারিদেকে আগুন।

তিনি আরো বলেন এসব কারখানায় সারা রাত কাজ চলে।

এখানে কাঠার ভূসি তেতুলের বিচি ও ক্যামিকেল দিয়ে কয়েল তৈরীর কাঁচামাল বানান হয়।


স্থানীয়রা জানান, এই কারখানা গুলোতে এ নিয়ে তিনবার আগুন লেগেছে।

তারা আরো অভিযোগ করেন আবাসিক এলাকায় কি করে এসব কারখানা চলে।

যাদের কোন ধরনের অনুমতি নাই অথচ বছরের পর বছর এ ভাবে কারখানা গুলে চলছে। এ কারখানা গুলোর  বিরুদ্ধে একাধিকবার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। 



কদমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রলয় কুমার সাহা জানান, রাত আনুমানিক ১ঃ৩০ মিনিটে রায়ের বাগে তাহের এন্টারপ্রাইজ আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

এটি মুলত কয়েল তৈরীর কাঁচামাল কাঠের ভুসির ৪ টি কারখানা। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। 


ঢাকা ফায়ার সার্ভিসের এ ডি আব্দুল হালিম, জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা যাচ্ছে বৈদ্যুৎ সর্ট সার্কিটের ফলে আগুনের সূত্রপাত ঘটতে পারে।

আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের ৮ টি ইউনিটি কাজ করছে। ভয়াবহ আগুনের ঘটনায় ৪ টি কারখানা ভসিভুত হয়ে যায়।

তবে কারখানা গুলো টিনের তৈরী সেই সাথে কারখানাগুলোতে আগুন প্রতিরোধের কোন ব্যবস্থা না থাকায় আগুনের ভয়বহতা ব্যাপক হয়েছে।

তিনি আরো বলেন প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টার ফলে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে ।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 



আরও খবর



গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি

প্রকাশিত:Saturday ২৭ November ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ৩২৫জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image

 

 

 গাজীপুরে মা-মেয়েকে গলা কেটে হত্যার রহস্য ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে উদঘাটন করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে দুই খুনিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মাত্র ৩০-৪০ সেকেন্ডেই মা-মেয়েকে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছেন তারা।

 

জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার সালদিয়া গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা হলেন- একই গ্রামের সাত্তার খানের ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও মনির হোসেনের ছেলে মহিউদ্দিন ওরফে বাবু।

শনিবার দুপুরে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর দফতরে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান উপ-পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মো. জাকির হাসান।

তিনি জানান, ১২ বছর আগে রাজশাহী জেলার বাসিন্দা জয়নাল আবেদীনের সঙ্গে ফেরদৌসীর বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ১১ বছরের মেয়ে হাফসা ও চার বছরের তাসমিয়া রয়েছে। কিন্তু বনিবনা না হওয়ায় স্বামীকে তালাক দিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন ফেরদৌসী। এরপর মোবাইল ফোনে পরিচয়ের মাধ্যমে তিন বছর আগে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রবিউল ইসলামের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। রবিউলেরও আরেক সংসার ছিল। কিন্তু দুই বছর আগে তার সঙ্গেও ফেরদৌসীর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

 

এরপর দুই মেয়েকে নিয়ে হাড়িনাল এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে গার্ডিয়ান লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেডে চাকরি করেন। এছাড়া তিন মাস আগে স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয় বাবুর। পরে ফেরদৌসীর সহায়তায় একই কোম্পানিতে চাকরি নেন বাবু। কিন্তু বিচ্ছেদের ঘটনায় ফেরদৌসীকেই দায়ী মনে করেন তিনি। আর এ প্রতিশোধ নিতেই হত্যার পরিকল্পনা।

 

পরিকল্পনা অনুযায়ী বুধবার সন্ধ্যায় ইনস্যুরেন্সের টাকা দেওয়ার কথা বলে মোবাইল ফোনে ফেরদৌসীকে ডাকেন বাবুর বন্ধু জাহিদুল। ফোন পেয়ে মেয়ে তাসমিয়াকে নিয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের দেশীপাড়া এলাকায় যান ফেরদৌসী। সেখানে যেতেই তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কাটেন জাহিদুল ও বাবু। মাকে রক্তাক্ত দেখে চিৎকার করলে মেয়েকেও গলা কেটে হত্যা করেন তারা। দুটি খুন করতে তারা সময় নেন মাত্র ৩০-৪০ সেকেন্ড। এরপর তারা মোটরসাইকেলে পালিয়ে যান।

বুধবার রাতে দেশীপাড়া এলাকায় সড়কের পাশে মা-মেয়ের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন এক কেয়ারটেকার। পরে লাশ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ।

 

নিহতরা হলেন- গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গালীয়া ইউনিয়নের বড়াইয়া গ্রামের বাছির উদ্দিন বছুর মেয়ে ফেরদৌসী আক্তার ও তার চার বছর বয়সী মেয়ে তাসমিয়া আক্তার। ফেরদৌসী স্থানীয় চান্দনা চৌরাস্তার এলাকার গার্ডিয়ান লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেডের মাঠকর্মী হিসেবে কাজ করতেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর