Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
গ্রীষ্মের রুক্ষ প্রকৃতিতে শোভা ছড়াচ্ছে সোনালু ফুল ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২৬২ জন নিহত মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার

৯৬ হাজার অবৈধ কর্মীকে বৈধতা দে‌বে ওমান: প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:৯৬ হাজার অবৈধ বাংলাদেশি কর্মীকে বৈধতার আশ্বাস দিয়েছে ওমান সরকার। একইস‌ঙ্গে দেশ‌টি বাংলা‌দেশ থে‌কে ১২ ক‌্যাটাগ‌রি‌তে লোক নেওয়ারও আশ্বাস দি‌য়ে‌ছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে সাংবাদিকের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান।

সম্প্রতি শ্রমবাজার ইস‌্যু‌তে দুবাই, ওমান ও কাতার সফর ক‌রেন প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী। তি‌নি ব‌লেন, ওমানে ৯৬ হাজার কর্মী অবৈধভাবে বসবাস করছেন। তাদেরকে বৈধ করার আশ্বাস দিয়েছে ওমান সরকার।

এই বৈধকরণে জন্য একটি জরিমানা নেওয়া হয়। এই জরিমানা মওকুফ করার জন্য ওমান সরকারকে অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী।

শ‌ফিকুর রহমান ব‌লেন, ওমান বাংলা‌দেশ থে‌কে ১২ ক্যাটাগরিতে লোক নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে। তারা দক্ষ কর্মী চায়। আমরা এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। দক্ষ কর্মী যাওয়া শুরু করলে অদক্ষ কর্মীও যাওয়া শুরু করবে। পর্যায়ক্রমে সে ব্যবস্থা হবে।

সংযুক্ত আরব আমিরা‌তের শ্রমবাজার নি‌য়ে প্রতিমন্ত্রী জানান, দুবাই শ্রমবাজার আরও গতিশীল ও বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে দুবাইয়ের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছে। দুবাই থেকে ইতোমধ্যে ৩ হাজার কর্মীর চাহিদা এসেছে। এরমধ্যে ৪শ কর্মী চলে গেছে। ৫শ কর্মী যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।


আরও খবর



আফতাবনগরে বসানো যাবে না গরুর হাট

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৯০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীর আফতাবনগরে গরুর হাট পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে বসানোর সিটি করপোরেশনের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। ফলে আসন্ন ঈদে আফতাবনগরে গরুর হাট বসানো যাবে না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

সোমবার (৩ জুন) প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক ও অ্যাডভোকেট এস এম শামীম হোসাইন। হাটের ইজারাদার নুরুল ইসলামের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি।

পরে আইনজীবী অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক ও অ্যাডভোকেট এস এম শামীম হোসাইন বলেন, আফতাবনগর পরিকল্পিত আবাসিক নগরী। এ বিবেচনায় আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন।

এর আগে গত ৮ মে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে রাজধানীর আফতাবনগরে গরুর হাট বসানোর ইজারার বিজ্ঞপ্তি স্থগিত করেন হাইকোর্ট। বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আফতাবনগর আবাসিক এলাকায় হওয়ায় আদালত এ আদেশ দেন। পরে এ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেন হাটের ইজারাদার নুরুল ইসলাম।

এর আগে আফতাবনগরে গরুর হাট বসানোর সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন জহুরুল ইসলাম সিটি সোসাইটির সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন ঢালী ও সাধারণ সম্পাদক এস এম কামাল।

গত ৪ এপ্রিল ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা ঈদুল আজহা ২০২৪ উপলক্ষ্যে কোরবানির পশুর হাট বসানোর জন্য ইজারা বিজ্ঞপ্তি দেন। ওই বিজ্ঞপ্তি চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়।

রিটে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সচিব, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়।

স্থানীয় সরকার (সিটি করপেরেশন) ২০০৯ আইনের ধারা ৩ (২) ও ১ম তফসিল অনুযায়ী আফতাবনগর (ইস্টার্ন হাউজিং) বাড্ডা থানার ৩৭ নং ওয়ার্ড অধীন, যা ঢাকা নর্থ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) অন্তর্ভুক্ত।


আরও খবর



আজ দেশের ৫৩তম বাজেট পেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৩৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আবুল হাসান মাহমুদ আলী দেশের ১৮তম অর্থমন্ত্রী হিসেবে আজ জাতীয় সংসদে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের জন্য ৭ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকার বাজেট দিতে যাচ্ছেন। এটি দেশের ৫৩তম বাজেট। অর্থমন্ত্রী হিসেবে আবুল হাসান মাহমুদ আলীর এটিই প্রথম বাজেট।

২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটের আকার বাড়লেও ঘাটতির পরিমাণ কমছে। চলতি অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের তুলনায় আগামী অর্থবছরের বাজেটে ঘাটতি কম ধরা হচ্ছে ৫ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা। অনুদান ছাড়া বাজেট ঘাটতি ধরা হচ্ছে ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা। তবে অনুদানসহ সামগ্রিক ঘাটতি দাঁড়াবে ২ লাখ ৫১ হাজার ৬০০ কোটি টাকা। অর্থাৎ, আগামী অর্থবছর ৪ হাজার ৪০০ কোটি টাকা অনুদান পাওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে।

ঘাটতি মেটাতে বৈদেশিক ঋণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে ১ লাখ ২৭ হাজার ২০০ কোটি টাকা। বৈদেশি ঋণ পরিশোধ করা হবে ৩৬ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। এতে নিট বৈদেশিক ঋণ দাঁড়াবে ৯০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা।

অভ্যন্তরীণ ঋণ নেওয়া হবে ১ লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে নেওয়া হবে ১ লাখ ৩৭ হাজার ৫০০ কোটি, যার ৭২ হাজার ৬৮২ কোটি টাকা দীর্ঘমেয়াদি ঋণ এবং ৬৪ হাজার ৮১৮ কোটি টাকা স্বল্পমেয়াদি। ব্যাংকবহির্ভূত ঋণ নেওয়া হবে ২৩ হাজার ৪০০ কোটি টাকা। সঞ্চয়পত্র বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে ১৫ হাজার ৪০০ কোটি টাকা।

২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে ঋণের সুদ পরিশোধের ব্যয় ধরা হচ্ছে ১ লাখ ১৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। এর মধ্যে অভ্যন্তরীণ ঋণের সুদ ৯৩ হাজার কোটি টাকা। আর বৈদেশিক ঋণের সুদ ২০ হাজার ৫০০ কোটি টাকা।

বাজেটে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে ৫ লাখ ৪১ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) লক্ষ্যমাত্রা ৪ লাখ ৮০ হাজার কোটি টাকা। এনবিআর বহির্ভূত কর ধরা হচ্ছে ১৫ হাজার কোটি টাকা। আর কর ব্যতীত প্রাপ্তির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে ৪৬ হাজার কোটি টাকা।

২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে পরিচালন ব্যয় ধরা হচ্ছে ৫ লাখ ৬ হাজার ৯৭১ কোটি টাকা। এর মধ্যে আবর্তক ব্যয় ৪ লাখ ৬৮ হাজার ৯৮৩ কোটি টাকা। আর দেশি-বিদেশি ঋণের সুদ পরিশোধ ১ লাখ ১৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। এবার মূলধন ব্যয় ধরা হচ্ছে ৩৭ হাজার ৯৮৯ কোটি টাকা।

আগামী অর্থবছরের বাজেটে উন্নয়ন ব্যয় ধরা হচ্ছে ২ লাখ ৮১ হাজার ৪৫০ কোটি টাকা। এর মধ্যে স্কিমে ব্যয় হবে ৫ হাজার ৯৪৩ কোটি টাকা। এডিপি বহির্ভূত বিশেষ প্রকল্পের ব্যয় ধরা হচ্ছে ৭ হাজার ৬২৭ কোটি টাকা। বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে ব্যয় ধরা হচ্ছে ২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকা। আর কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি (এডিপি বহির্ভূত) ও স্থানান্তরে ২ হাজার ৮৮৪ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে।


আরও খবর



সৈয়দপুর প্রেসক্লাবে রতন সভাপতি জিকরুল হক সাধারণ সম্পাদক

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৭জন দেখেছেন

Image

জহুরুল ইসলাম খোকন সৈয়দপুর( নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর সৈয়দপুর প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে (১ জুন) ওই নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে আবু-বিন আজাদ রতন সভাপতি  ও জিকরুল হক  সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন শেষে ভোট গণনার পর ফলাফল ঘোষণা করেন প্রিজাইডিং অফিসারের পক্ষে সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার মো. আব্দুল আজিজ।

নির্বাচনে অন্যান্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন সহ-সভাপতি পদে দৈনিক ইনিকিলাবের নজির হোসেন নজু (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আনোয়ার হোসেন (খবরপত্র), সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক হীরা শর্মা (উত্তরবাংলা), কোষাধ্যক্ষ পদে গোপাল চন্দ্র রায় (বিনা প্রিাকদ্বন্দ্বিতায়), দফতর সম্পাদক পদে মিজানুর রহমান মিলন ও কার্যকরী সদস্য পদে কাজী জাহিদ (সংবাদ), আলহাজ্ব মকসুদ আলম ( সম্পাদক নীলফামারী চিত্র), সাদিকুল ইসলাম (নাগরিক টিভি) ও নজরুল ইসলাম (সময়ের আলো)।

এই নির্বাচনে মোট ৩১ জন ভোটারের মধ্যে ২৯ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। অনেক আলোচনা-সমালোচনার প্রেসক্লাবের এই নির্বাচনে ধারাবাহিকতা সৃষ্টি হলো মনে করেন সৈয়দপুরের কর্মরত সাংবাদিকরা।

সৈয়দপুর প্রেসক্লাবের নব-নির্বাচিত কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সিদ্দিকুল আলম, সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র রাফিকা আকতার জাহান, সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান রিয়াদ আরফান সরকার রানা, ভাইস চেয়ারম্যান মহসিন আলী মন্ডল মিঠু, নীলফামারী প্রেসক্লাবের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম সিয়াম, সাধারণ সম্পাদক হাসান রাব্বী প্রধান প্রমুখ।


আরও খবর



মাগুরা জেলা পরিষদের ৪৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষনা

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরা জেলা পরিষদের ২০২৪- ২৫ অর্থ বছরের ৪৯ কোটি ১৩ লাখ ২৫ হাজার ৭৭১  টাকার বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে।  বাজেট অধিবেশনের সভাপতি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পঙ্কজ কুমার কুন্ডু এ বাজেট ঘোষনা  করেন। রবিবার দুপুরে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ বাজেট অধিবেশনে মাগুরা ২ আসনের সংসদ সদস্য এড, বীরেন শিকদার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মুন্সী রেজাউল হক, সৈয়দ শরিফুল ইসলাম, মাগুরা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রানা আমীর ওসমান, মহম্মদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দূল মান্নান, শালিখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শ্যামল কুমার দে,  মাগুরা ১ আসনের সংসদ সদস্য সাকিব আল হাসান এর পিতা মাশরুর রেজা কুটিল, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান খোকন, পরিষদের সদস্য মন্ডলী বাজেট অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন। জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী সানিউল কাদের অধিবেশনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। প্রস্তাবিত বাজেটে উন্নয়ন ও সংস্থাপন ব্যায় ২৫ কোটি ৩৮ লাখ ৫০ হাজার ও মূলধনী ব্যায় ২৩ কোটি ৭৪ লাখ ৭৫ হাজির ৭৭১ টাকা মিলে  মোট ৪৯ কোটি ১৩ লাখ ২৫ হাজার ৭৭১ টাকার বাজেট ঘোষনা করা হয়।


আরও খবর



রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৫৩জন দেখেছেন

Image

মোঃআবু কাওছার মিঠু রুপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঞ্চন পৌরসভার নির্বাচনে মোবাইল ফোন মার্কা প্রতীকের প্রচার প্রচারণা জমে উঠেছে ব্যাপকভাবে। এদিকে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন মেয়র প্রার্থী রফিক জগ মার্কা ও মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা মোবাইল ফোন মার্কায়। তারই ধারাবাহিকতায় আওয়ামী লীগের মনোনীত মোবাইল ফোন মার্কার মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাশার বাদশার পক্ষে গতকাল বিকাল ৩ টার দিকে রুপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী এইচ এম ইমরান হোসেন উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের কুশাব, নলিরটেক, নলপাথর এলাকায় কয়েকশ নেতা কর্মী নিয়ে কাঞ্চন পৌরসভার সাধারণ ভোটারদের দ্বারে দ্বারে মোবাইল ফোন প্রতীক মার্কায় তাদের মূল্যবান ভোট চেয়ে গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণাসহ লিফলেট বিতরণ করেন। 


পরে কাঞ্চন পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের ভোটারদের উদ্দেশ্যে রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী এইচ এম ইমরান হোসেন বলেন, রূপগঞ্জ আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী দেওয়ান আবুল বাসার বাদশাকে যদি আপনারা মোবাইল মার্কা প্রতীকে আপাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন তা হলে আপনাদের কাঞ্চন পৌরসভার যে কাজগুলো স্থগিত রয়েছে সে কাজগুলো দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা সম্পূর্ণ করবে এবং আপনারা কাঞ্চনবাসীরা সুখে-দুখে যেকোনো সময় কাছে পাবেন দেওয়ান আবুল বাশার বাদশাকে।


তাই আপনারা কাঞ্চন পৌরসভা বাসি সবাই দেওয়ান আবুল বাসার বাদসাকে মোবাইল ফোন মার্কা প্রতীকে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে আপনাদের কাঞ্চনবাসীর কাজ করার সুযোগ করে দিবেন ইনশাআল্লাহ।

      -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর