English Version

‘তারেকের ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল’

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১১, ২০১৮, ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ


ডেস্ক নিউজ:২১ অাগস্ট গ্রেনেড হামলায় আহতরা এ হামলার মহানায়ক তারেক রহমানের ফাঁসির আদেশ দিলে খুশি হতেন। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায়ে খুশি হতে পারেননি সেদিনের আহতরা। তারা বলেন, তারেকের ফাঁসির জন্য আমাদের আন্দোলন অব্যাহতভাবে চলবে। যে মহানায়কের আদেশে ২৪টি তাজাপ্রাণ ঝরে গেছে, এ ধরনের সাজা তার মানায় না।

২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় আহত আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, বিলম্বিত এ রায়ে আমি অখুশি না হলেও পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই। এই হামলার মূলহোতার সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত ছিল।

বলেন, আমরা ন্যায়বিচার চাই। আমি নিজেও তো এই হামলায় আহত হয়েছি। আমাদের নেত্রীর (শেখ হাসিনা) একটা কানের শ্রবণশক্তি চলে গেছে। আইভি রহমানসহ ২৪ জনের প্রাণের প্রদীপ চিরদিনের মতো নিভে গেছে।

তিনি বলেন, সে সময় ক্ষমতায় ছিল বিএনপি। সবাই জানে এর মাস্টারমাইন্ড হচ্ছে হাওয়া ভবন, তারেক রহমান। এখন সত্যকে আড়াল করে লাভ নাই। তারপরও আমরা এই ব্যাপারে রায়ের আগে কোনো কমেন্ট করতে চাই না। আমরা আদালতের কাছে ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করি।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন প্রত্যাশা করেছিলেন, এই হামলার সঙ্গে ডাইরেক্ট এবং ইনডাইরেক্ট জড়িত সবার সর্বোচ্চ শাস্তি হয়নি। মূল আসামিকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেয়া হয়নি।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের ভাইস চেয়ারম্যান ও মতিঝিল মডেল হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি আওলাদ হোসেন তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, এই হামলার মহানায়ক তারেক রহমানের ফাঁসি না হওয়ায় খুশি হতে পারিনি।

সেদিনের হামলায় গ্রেনেডের স্প্লিন্টার এখনো শরীরে বহন করছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-মহিলাবিষয়ক সম্পাদক উম্মে রাজিয়া কাজল। প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, এই রায়ে আমি খুশি না।

সেদিনের ঘটনায় আরেক আহত তৎকালীন ঢাকা মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মাহবুবা পারভীনও একই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এই মামলার রায়ে তারেক রহমানের ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল।

গ্রেনেড হামলায় আহত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তরের সভাপতি আজিজুর রহমান বাচ্চু বলেন, আমরা এ রায়ে কিছুটা সন্তুষ্ট। কিন্তু এ রায়ে তারেক রহমানসহ অন্য যাদের যাবজ্জীবন হয়েছে, তাদেরও ফাঁসি হওয়া উচিত ছিল।

ক্ষোভ জানিয়ে মনোয়ারা বেগম বলেন, শরীরে স্প্লিন্টার নিয়ে যন্ত্রণার সাথে বেঁচে আছি। বহুদিন পর এ রায় হয়েছে, প্রত্যাশা ছিল হামলার মূল কারিগর তারেকের ফাঁসি হবে, কিন্তু আমরা দেখলাম তার যাবজ্জীবন হয়েছে। মামলায় খালেদা জিয়াকে আসামি করা দরকার ছিল। এ হামলার সাথে খালেদা জিয়াও জড়িত।

প্রকাশকঃ
মোঃ মামুনুর হাসান (টিপু)

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক:
খন্দকার আমিনুর রহমান

৫০/এফ, ইনার সার্কুলার, (ভি আই পি) রোড- নয়া পল্টন ,ঢাকা- ১০০০।
ফোন: ০২-৯৩৩১৩৯৪, ৯৩৩১৩৯৫, নিউজ রুমঃ ০১৫৩৫৭৭৩৩১৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]

.::Developed by::.
Great IT