Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

১ থেকে ৭ ডিসেম্বর বুস্টার ডোজ ক্যাম্পেইন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৪৩৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ;ক‌রোনার সংক্রমণ রোধে ডিসেম্বরের ১ থেকে ৭ তা‌রিখ পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী ক্যাম্পেইন পরিচালনা করবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এ সময় ৯০ লাখ জনগোষ্ঠীকে বিশেষ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে বুস্টার ডোজ টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বিশ্ব অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও প‌রিবার কল্যাণমন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাজধানীর হোটেল মেরিডিয়ানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, সামনে আমা‌দের মহান বিজয় দিবস। এই উপলক্ষে টিকার ক্যাম্পেইনের উদ্যোগ নিয়েছি। এটি ১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে, চলবে ৭ তারিখ পর্যন্ত।

মন্ত্রী আরও বলেন, বিশেষ এই ক্যাম্পেইনে ৯০ লাখ লোককে টিকা দেওয়া হবে। আমরা এর আগে যতগুলো ক্যাম্পেইন করেছি, সবগুলোই সফল হয়েছে। আশা করছি এটিও সফল হবে। এ পর্যন্ত ১৩ কোটি ৯ লাখ মানুষকে প্রথম ডোজ টিকা আমরা দিয়েছি, যা লক্ষ্যমাত্রার ৯৮ শতাংশ। এ ছাড়াও দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ১২ কোটি ৪২ লাখ মানুষ‌কে, যা লক্ষ্যমাত্রার ৯৫ শতাংশ। বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে ৫ কোটি ৮৬ লাখ ডোজ, যা লক্ষ্যমাত্রার ৫২ শতাংশ। 

মন্ত্রী বলেন, গত বছরের ২৭ জানুয়ারি থেকে আমা‌দের দে‌শে ক‌রোনার ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম শুরু হয়। দে‌শে ১২ বছর ও তদূর্ধ্ব বয়সী মোট জনসংখ্যা ১৩ কোটি ৩১ লাখ। প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজে আমরা অনেকদূর এগিয়ে গেলেও বুস্টার ডোজের জন্য অপেক্ষমান জনগোষ্ঠী এখনও ৪ কোটি ৫৮ লাখ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আজ পর্যন্ত আমরা ৯টি বি‌শেষ ক্যাম্পেইন আয়োজন করেছি। এস‌বের মাধ্যমে টিকা দিয়েছি ১৩ কোটি ৪৯ লাখ ডোজ। বিজয়ের মাস উপলক্ষে আমরা ৯০ লাখ জনগোষ্ঠীকে বিশেষ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে বুস্টার ডোজ টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছি।

অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বিশেষ এই ক্যাম্পেইনে মোট কেন্দ্র থাকবে ২৮ হাজার ৫৬৯টি। মোট ভ্যাকসিনেটর থাকবেন ৫৭ হাজার ১৩৮ জন। ভলান্টিয়ার থাকবেন এক লাখ ৪২ হাজার ৮৪৫ জন। টিকার বর্তমান মজুত র‌য়ে‌ছে প্রায় এক কোটি ডোজ।


আরও খবর



বিপণী বিতানে ক্ষতিগ্রস্তরা দোকান পাবেন: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনা বলেন বিপণী বিতানে ক্ষতিগ্রস্তরা দোকান পাবেন। নতুন করে ব্যবসা শুরু করতে কোনো আর্থিক সহযোগিতার প্রয়োজন হলে তা সরকারে দেবে৷ এই মার্কেট নতুন করে বাঁচার শক্তি দেবে ব্যবসায়ীদের। এ সময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক নতুন ক্যাম্পাস গড়ে তোলা হবে বলেও জানান তিনি।

শনিবার (২৫ মে) বঙ্গবাজারে নতুন মার্কেটসহ চার প্রকল্পের উদ্বোধন শেষে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় নগরবাসীকে যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা না ফেলার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলবেন। সিটি করপোরেশনকে দ্রুত ময়লাগুলো অপসারণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। যেন শহর পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকে।

এছাড়া আসন্ন ঈদুল আজহায় যেখানে সেখানে পশু কোরবানি না করার নির্দেশনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যত্রতত্র পশু কোরবানি দেবেন না৷ নির্দিষ্টস্থানে কোরবানি দেবেন। আগামীতে পশু কোরবানির জন্য আরও আধুনিক ব্যবস্থা রাখতে বলা হয়েছে সিটি করপোরেশনগুলোতে। শুধু সিটি করপোরেশন নয়, দেশব্যাপী আধুনিক ব্যবস্থা রাখতে হবে সেই নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ-পানি ঠিকমত পেত না নগরবাসী৷ স্বাস্থ্যকর পানি পেতে চাইলে, নিজের পানির ট্যাঙ্ক নিজেদেরই পরীক্ষা করে দেখতে হবে। মশার প্রজনন ক্ষেত্র যেন তৈরি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন৷ আগের চেয়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার বেড়েছে।

অতিরিক্ত বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঘর থেকে বের হওয়ার আগে লাইট-ফ্যান-চার্জারের সুইচ বন্ধ রাখবেন। চার্জারের লাল বাতি জ্বললেও বিল ওঠে। বিদ্যুৎ উৎপাদনের খরচ অবশ্যই আপনাকে দিকে দিতে হবে। না হলে বিদ্যুৎ আসবে কোথা থেকে।

সরকার প্রধান বলেন, পানি বিল কমাতে চাইলে পানি ব্যবহারেও সাশ্রয়ী হবেন। পানির কল ছেড়ে, শেভিং কিংবা কাপড় কাচা বা দাঁত মাজবেন না৷ পানি অপচয় করবেন না।

প্রকল্প-পরিকল্পনা নেওয়ার আগে জলাধারগুলো সংরক্ষণ রাখারা জন্য প্রকৌশলিদের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জলাশায় থাকলে বাতাস ঠাণ্ডা থাকে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এক সময় ঢাকায় অনেক খাল-পুকুর, জলাশয় ছিল। তখন ঢাকার পরিবেশও সুন্দর ছিল। বাতাস ঠাণ্ডা ছিল। কিন্তু এখন সেগুলো দালান-কালভার্ট নির্মাণে ভরাট হয়ে গেছে। যদিও কিছু খাল উদ্ধার করা হয়েছে।

পার্কগুলো যেন মাদকসেবীদের আখড়া না হয়। শোভাবর্ধন-পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায়ে রাখতে ভূমিকা রাখতে হব কাউন্সিলরদের-এ কথা জানিয়ে তিনি বলেন, মাদক থেকে দূরে থাকবেন সবাই।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাজাপ্রপ্ত তারেক জিয়া এখন বিদেশ থেকে দেশে অশান্তির হুকুম দেয়। অস্ত্র চোরাচালানের রুট ছিল বাংলাদেশ৷ সেটা বন্ধ করা হয়েছে। আত্মমর্যাদা-আত্মসম্মান নিয়ে চলার সক্ষমতা অর্জন করতে হবে তরুণ প্রজন্মকে।


আরও খবর



হামিদপুর ইউনিয়নে বাল্যবিবাহ

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ২১জন দেখেছেন

Image

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার ৯নং হামিদপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের শাহাগ্রামে নাবালক পুত্র আরহাম আল মুক্তাক্তীর বাল্য বিবাহ হয়। পার্বতীপুর উপজেলার ৯নং হামিদপুর ইউপির শাহাগ্রামের মোঃ গোলাম রব্বানীর পুত্র আরহাম আল মুক্তাক্তীর সাথে বগুড়া জেলার ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ী গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলামের কন্যা মোছাঃ রাফিয়া নূর নিলা এর সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এর মাধ্যমে পরিচয় হলে তাকে সেখান থেকে গত ১৮/০৬/২০২৪ ইং তারিখে পালিয়ে এলে আরহাম আল মুক্তাক্তীর পিতা মোঃ গোলাম রব্বানীর উপস্থিতিতে গত ২০/০৬/২০২৪ইং তারিখে কোট এফিডেভিটের মাধ্যমে পুত্রকে বিবাহ দেন। উল্লেখ্য যে, পুত্র মোঃ আরহাম আল মুক্তাক্তীর জন্ম তারিখ- ০৯/০৭/২০০৮ইং। তার বর্তমান বয়স ১৫ বছর ১১ মাস ১৪দিন। তার এখনও পরিপূর্ণ বিবাহের বয়স হয়নি। সেদিকে লক্ষ্য রেখে ঐ বিবাহ বাল্য বিবাহ হয়। মেয়ের বয়স দেখা যায় যে, জন্ম তারিখ ১৭/০৬/২০০৬ইং তারিখ থেকে বর্তমান বয়স ১৮ বছর ০০ মাস ০৬ দিন। এই বিবাহটি একেবারে বাল্য বিবাহের মধ্যে পড়ে। এই ঘটনায় নাবালকের পুত্রের বাবা বাল্য বিবাহ কিভাবে দেয় এলাকাবাসীর প্রশ্ন? ২০১৭ সালের বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে ৭(১) ও ৮ ধারামতে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছে। এই ঘটনায় এলাকাবাসী দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কাছে বাল্য বিবাহ রোধ কল্পে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেছেন। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী তদন্তস্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আইন প্রয়োগ কারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আরও খবর



বোট ক্লাবের সভাপতির পদ ছাড়লেন বেনজীর

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ৮১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ ঢাকার অদূরে সাভারের বোট ক্লাবের সভাপতির পদ ছেড়েছেন। ১৩ জুন ক্লাবের উপদেষ্টা রুবেল আজীজের কাছে চিঠি পাঠিয়ে তিনি এ পদ ছাড়েন।

বোট ক্লাবের নির্বাহী কমিটির সদস্য ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নাসির ইউ মাহমুদ বলেন, বোট ক্লাবের সভাপতির দায়িত্বে থাকা বেনজীর আহমেদ ক্লাবের উপদেষ্টা রুবেল আজীজের কাছে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন, জরুরি কাজে পরিবারের সঙ্গে তিনি দেশের বাইরে আছেন। যে কারণে তিনি ক্লাবের সভাপতির দায়িত্ব পালন করতে পারছেন না।

নাসির জানান, বেনজীর আহমেদের পদত্যাগের পর রুবেল আজীজকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের ও তার পরিবারের সম্পদ অনুসন্ধান করছিল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তার মধ্যেই গত ৪ মে সপরিবারে দেশ ছাড়েন তিনি।

বেনজীর আহমেদ ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আইজিপি এবং ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২০ সালের এপ্রিল পর্যন্ত র‌্যাবের মহাপরিচালক ছিলেন বেনজীর। তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

বেনজীর পরিবারের সম্পদের অনুসন্ধান অব্যাহত রেখেছে দুদক। এখন পর্যন্ত যেসব সম্পদ পাওয়া গেছে, তা জব্দের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সর্বশেষ বেনজীর ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে ঢাকায় আরও আটটি ফ্ল্যাটের খোঁজ পাওয়ার কথা জানায় দুদক। এর মধ্যে ছয়টি ফ্ল্যাট ঢাকার আদাবরের একটি ভবনে। দুটি বাড্ডায়। রূপায়ন লিমিটেড স্কয়ার নামের ১৪ তলা ভবনে অবস্থিত বাড্ডার ফ্ল্যাট দুটি বাণিজ্যিক বা অফিস স্পেস।

বেনজীর পরিবারের নামে ঢাকায় মোট ১২টি ফ্ল্যাটের খোঁজ পাওয়া গেছে। এর আগে গুলশানে চারটি ফ্ল্যাটের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল।


আরও খবর



অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনকা‌লে ষ্টী‌লের নৌকা সহ আটক ২

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৮৪জন দেখেছেন

Image

আনোয়ার হো‌সেন র‌নি,ছাতক সুনামগঞ্জ প্রতি‌নি‌ধি:ছাত‌কে চেলা ও মরা চেলা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে অ‌বৈধ ড্রেজার ও একটি স্টীলের  নৌকাসহ ২ ব‌্যক্তি কে আটক করেছে নৌ পুলিশের একটি দল।

শ‌নিবার রা‌তে উপ‌জেলার ইসলাসপুর ইউপির চেলা নদীর বাবনগাও মরা নদী থে‌কে ষ্টী‌লের নৌকাসহ তাদের আটক করেন পু‌লিশ।আসামী‌দেরকে গত রোববার সকা‌লে ছাতক থে‌কে সুনামগঞ্জ আদাল‌তে পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে।

আটককৃতরা হলেন- সি‌লে‌টের কোম্পানীগঞ্জ থানার চাটিবহর গ্রা‌মের আব্দুর রহিম  ছে‌লে মানিক মিয়া( ৫২) একই মৃত আঞ্জু মিয়ার ছে‌লে চেরাগ আলী( ৫২) কে ষ্টী‌ল  ১৭শ ফুট নৌকা ৮শত ফুট বালুসহ আটক ক‌রেন নৌ পু‌লিশ।

এ ঘটনায় এসআই ফরিদ উদ্দিন বাদী হ‌য়ে ধারা- বালু মহাল ও মাটি  ব্যাবস্থাপনা আইনের ২০১০ এর ১৫(১) তৎসহ ৪৩১ পেনাল কোড এর এক‌টি মামলা দা‌য়ের ক‌রেন  মামলা নং- ১২/১২১ তাং- ০৯/০৬/২০২৪।

এ ব‌্যাপা‌রে ছাতক নৌ  পু‌লি‌শের ইনচাজ আনোয়ার মিয়া এ ঘটনার সত‌্যতা নি‌শ্চিত ক‌রে ব‌লেন চৈলা নদী‌তে এদের নেতৃ‌ত্বে  অ‌বৈধ ড্রেজার দি‌য়ে প্রতি‌নিয়ত পাথর বালু উত্তোল‌ন করার অপরা‌ধে নৌকা সহ আটক ক‌রা হয়। এদের‌কে গত রোববার সকা‌লে সুনামগঞ্জ আদাল‌তে পাঠা‌নো হ‌য়।


আরও খবর



মধ্য আমেরিকায় ভারী বর্ষণ ও ঝড়ে নিহত ৩০

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:অবিরাম বর্ষণে বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনায় অন্তত ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে মধ্য আমেরিকার দেশ গুয়াতেমালা, হন্ডুরাস ও এল সালভাদরে গত কয়েকদিনের। চলতি সপ্তাহে টানা কয়েকদিন ধরে এই প্রবল বৃষ্টিপাত চলছে। এ ছাড়া ঘরবাড়ি ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছে কয়েক হাজার মানুষ।

আন্তর্জাতিক বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শুক্রবারেই (২১ জুন) ১৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে ৬ জন শিশুও রয়েছে। প্রায় ৩ হাজার মানুষ এখনও অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে রয়েছে।

এল সালভাদরের নাগরিক সুরক্ষা সংস্থার প্রধান লুইস আমায়া সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের অবশ্যই মানুষের জীবন বাঁচাতে হবে। বস্তুগত পণ্য আসে এবং যায়, কিন্তু এখন আমাদের জীবন রক্ষায় মনোযোগ দিতে হবে।’

গুয়েতেমালায় ঝড় ও বন্যায় ১০ জন মারা গেছেন। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দুর্গত এলাকা থেকে ১১ হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ৪টি সেতু ধ্বংস হওয়ার পাশাপাশি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩০০টি সেতু। অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্রে রয়েছেন ৩৮০ জন।

হন্ডুরাসেও প্রাণহানির ঘটেছে। সেখানে ১ জন মারা গেছে এবং ১ হাজার ২০০ জনের বেশি মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় প্রবল বৃ্ষ্িটপাতে ২২টি বাড়ি ধসে পড়েছে।


আরও খবর