English Version

গাইবান্ধার করতোয়া নদীর পানি বিপদসীমার উপরে

প্রকাশিতঃ জুলাই ২৮, ২০২০, ৩:৪৩ পূর্বাহ্ণ


    সুমন মন্ডল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধায় সবগুলি নদ-নদীর পানি ধীর গতিতে কমতে শুরু করলেও ব্রহ্মপুত্র, ঘাঘট, করতোয়া নদীর পানি বিপদসীমার অনেক উপরে রয়েছে।ফলে জেলার উজানে উন্নতি হতে শুরু করলেও ভাটিতে অবনতি ঘটছে।

সোমবার সকালে ব্রহ্মপুত্রের পানি ফুলছড়ি পয়েন্টে ৮ সেন্টিমিটার কমে বিপদসীমার ৯০ সেন্টিমিটার, ঘাঘট নদীর পানি শহর পয়েন্টে ৩ সেন্টিমিটার কমে বিপদসীমার ৭১

সেন্টিমিটার এবং করতোয়ার পানি কাটাখালী পয়েন্টে ৮ সেন্টিমটার কমে বিপদসীমার ২২ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।জেলা প্রশাসন জানিয়েছে,

গত ২৬ জুন থেকে আজ সোমবার(২৭ জুলাই) পর্যন্ত ৩২ দিন যাবৎ তিন দফা বন্যায় জেলার ৬ উপজেলা ও একটি পৌরসভার ২০০ গ্রামের ৩৭ হাজার ৪৪৭টি পরিবারের ১ লাখ ৪৮ হাজার ১৩৮ মানুষ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত।

বন্যার্তদের জন্য ১৬৭টি আশ্রয় কেন্দ্রে খোলা হয়েছে।

তবে ৯২টি আশ্রয় কেন্দ্র ১৭ হাজার ৭৭৫ জন মানুষ আশ্রয় নিয়েছে। যারা আশ্রয় কেন্দ্রে যাননি তাদের অনেকে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছে।

কেউবা বাড়িতেই মাচা করে অবস্থান করছেন। এছাড়া বন্যা কবলিত এলাকা থেকে ৩৫ হাজার ৩৩টি গরু-মহিষ ও ২০ হাজার ৮০৭টি ছাগল-ভেড়া আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে অবস্থান করছে।

একদিকে সাড়ে ৪ মাস যাবৎ করোনাভাইরাসের কারণে বেকরত্ব। তার উপর তিন দফা দীর্ঘস্থায়ী বন্যা।

বন্যা দুর্গত এলাকায় কর্মহীন মানুষগুলো চরম খাদ্য সংকটে পড়েছে। এছাড়া গবাদি পশুর খাদ্য সংকট, বিশুদ্ধ পানি, পয়ঃনিস্কাশন সংকটসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

প্রকাশকঃ
মোঃ মামুনুর হাসান (টিপু)

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক:
খন্দকার আমিনুর রহমান

বার্তা সম্পাদকঃ
চৌধুরী বাগদাদ

৫০/এফ, ইনার সার্কুলার (ভিআইপি) রোড, নয়া পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৯৩৩১৩৯৪, ৯৩৩১৩৯৫, নিউজ রুমঃ ০১৬৪১৩১৫৬৩৭
ই-মেইল: khoborprotidin24.com@gmail.com

.::Developed by::.
Great IT