English Version

পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের হস্তক্ষেপে রত্না চা-বাগান ফের চালু

প্রকাশিতঃ জুন ২৫, ২০২০, ৯:৪৮ অপরাহ্ণ | শেষ আপডেটঃ জুন ২৬, ২০২০্‌, ৪:১৮ পূর্বাহ্ণ


সাইফুল ইসলাম সুমন জুড়ী, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় এফ রহমান টি কোম্পানি লিমিটেডের মালিকানাধীন রত্না চা-বাগান কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মোতাবেক অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা ।

 

করার পর অবশেষে বাগানটি স্থানীয় সাংসদ এবং সরকারের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের হস্তক্ষেপে ফের চালু হয়েছে। এর আগে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান কার্যালয়ের মানবসম্পদ বিভাগের পক্ষে আবু হেনা মোস্তফা কামালের সই করা নোটিশে বলা হয়, কিছু উৎশৃঙ্খল শ্রমিক-কর্মচারী বাগানের বিভিন্ন কর্মকান্ড পরিচালনায় বাধা দিচ্ছেন।

এতে উৎপাদন ও দাপ্তরিক কার্যক্রম বন্ধ হয়ে পড়েছে । এ অবস্থায় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ১৮ জুন থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাগান বন্ধ করে দেয়া হয়। রত্না চা-বাগানে সৃষ্ট সংকট নিরসনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এমপি।

রত্না চা-বাগানে সৃষ্ট সংকট নিরসনের জন্য জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বণিক, জুড়ী থানার অফিসার ইনর্চাজ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, জুড়ী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাস ও গোয়ালবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন আহমদকে নির্দেশ দেন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন।

মন্ত্রীর নির্দেশের পর গত ২০ জুন জুড়ী উপজেলায় একটি জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষে ভ্যালি কমিটি ও পঞ্চায়েত কমিটির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় রত্না চা-বাগানের সৃষ্ট কঠিন পরিস্থিতির জন্য বাগানের পঞ্চায়েত দুঃখ প্রকাশ করেন।

ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনা আর ঘটবে না বলে অঙ্গীকার করেন। এসময় সকলের মতামতের ভিত্তিতে বাগানের সার্বিক বিষয়ে ৭ টি কার্যত সিদ্ধান্ত গৃহীত হওয়ার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বণিক এই সভার রেজুলেশনটি বাগানের প্রধান কার্যালয়ে প্রেরন করেন। যার অনুলিপি জেলা প্রশাসক মৌলভীবাজারসহ বিভিন্ন দপ্তরে পাঠানো হয়।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে ২২ জুন সোমবার বাগানটির প্রধান কার্যালয়ের মানবসম্পদ বিভাগের আবু হেনা মোস্তফা কামালের সই করা একটি নোটিশে বাগানটি ফের চালু করার জন্য নির্দেশনা হয়। গতকাল বুধবার (২৪ জুন) থেকে চা-বাগানটি ফের চালু করা হয় এবং শ্রমিকদের মজুরী ও রেশন দেওয়া হয়।

এই বিভাগের আরো খবর

প্রকাশকঃ
মোঃ মামুনুর হাসান (টিপু)

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক:
খন্দকার আমিনুর রহমান

বার্তা সম্পাদকঃ
চৌধুরী বাগদাদ

৫০/এফ, ইনার সার্কুলার (ভিআইপি) রোড, নয়া পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৯৩৩১৩৯৪, ৯৩৩১৩৯৫, নিউজ রুমঃ ০১৬৪১৩১৫৬৩৭
ই-মেইল: khoborprotidin24.com@gmail.com

.::Developed by::.
Great IT