English Version

মুসলিম বিশ্বের নেতা হতে চান এরদোয়ান

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ৯, ২০২০, ৬:০৯ অপরাহ্ণ



          আন্তর্জাতিক ডেস্ক

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসেন। অনেকেই হয়তো ভাবতে পারেন জলসীমা নিয়ে বহুপাক্ষিক বিরোধ, পূর্ব ভূমধ্যসাগরে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানের জেরে গ্রিসের সঙ্গে যুদ্ধ যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে চাপে রয়েছেন তিনি। তবে এগুলোকে আধুনিক উপনিবেশবাদের খুব সাধারণ উদাহরণ বলেই মনে করছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট।

 

গত ১ সেপ্টেম্বরের ভাষণে তিনি জোর গলায় ঘোষণা দিয়েছেন, কয়েক শতাব্দী ধরে আফ্রিকা থেকে দক্ষিণ আমেরিকা পর্যন্ত কোনও অঞ্চলই শোষণ করতে যারা বাদ রাখেনি, কোনও সম্প্রদায়কেই হত্যাযজ্ঞ থেকে রেহাই দেয়নি এবং একজন মানুষকেও যারা অনিপীড়িত রাখেনি, তাদের দিন শেষ হয় আসছে।

নিজ দেশে দেশপ্রেমিক সমর্থন পেতে বহুদিন ধরেই পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে লড়ে যাচ্ছেন এরদোয়ান। এবার বিশ্বব্যাপী ভক্ত বাড়ানোর দিকে নজর দিয়েছেন তিনি। তুরস্কের এ নেতা নিজেকে মুসলিম উম্মাহ এবং বিশ্বের দরিদ্র মানুষদের কণ্ঠ হিসেবে তুলে ধরতে চান।

এতকাল এরদোয়ানের প্রধান লক্ষ্য ছিল মূলত ইউরোপ। তুরস্ক ঐতিহ্যগতভাবেই নিজেকে ফ্রান্স, বেলজিয়াম ও জার্মানির মতো দেশগুলোতে বসবাসকারী তুর্কিদের রক্ষাকর্তা হিসেবে মনে করে। তবে এরদোয়ান এখন আরও বড় পরিসরে ভাবতে শুরু করেছেন।

জার্মান ইনস্টিটিউট ফর ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাফেয়ার্সের গবেষক সিনেম আদার বলেন, তুরস্ক নিজেকে ইউরোপে মুসলিমদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করছে। এই নীতি ইতোমধ্যেই বলকান এলাকায় সফল হয়েছে। সেখানে বসনিয়াক, আলবেনিয়ান ও কসোভারদের সহানুভূতি পেতে উপসাগরীয় অর্থের বিপরীতে লড়তে হয়েছে তুরস্ককে।

তুর্কিদের কৌশলের একটি বড় অংশ জুড়েই রয়েছে ইসলামোফোবিয়ার (ইসলামভীতি) বিরুদ্ধে প্রচারণা। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন দেশে তুর্কি দূতাবাস, সহযোগিতা সংস্থা, লবিং গ্রুপগুলোকে সক্রিয় করেছে এরদোয়ান সরকার। মুসলিমদের যেকোনও ধরনের হয়রানি বা বিদ্বেষমূলক ঘটনা তাৎক্ষণিকভাবে তুর্কি দূতাবাসগুলোতে জানানোর অনুরোধ করা হয়েছে।

ইউরোপে মুসলিমবিদ্বেষ একটি বড় সমস্যা তবে সমালোচকদের দাবি, এরদোয়ানের এ প্রচারণা পশ্চিমা সরকারগুলোর বিরুদ্ধে অসন্তোষ উসকে দেয়া এবং তার নিজস্ব পররাষ্ট্রনীতির লক্ষ্যকে বৈধতা দেয়ার জন্য চালানো হচ্ছে।

ইউরোপের পাশাপাশি আমেরিকার মুসলিম এবং কৃষ্ণাঙ্গদেরও পাশে দাঁড়াচ্ছে তুরস্ক। এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে ওয়াশিংটনের কাছে একটি ইসলামিক সেন্টার চালু করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। বিখ্যাত বক্সার মোহাম্মদ আলীর শিকাগোর সম্পত্তি কিনে নেয়া হয়েছে। সেখানে মুসলিম শিশুদের জন্য গ্রীষ্মকালীন স্কুল চালুর পরিকল্পনা রয়েছে তুরস্কের। কয়েক বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রের আরেক মুসলিম হিরো ম্যালকম এক্সের মেয়েদের সঙ্গে দেখা করেছেন এরদোয়ান। ম্যালকমের এক কন্যা বেশ কয়েকবার বলেছেন, তুরস্কের এ নেতা তার মরহুম পিতার উত্তরাধিকারের মূর্ত প্রতীক। এর কিছুদিন পরেই আঙ্কারায় মার্কিন দূতাবাসের পাশের একটি সড়কের নাম পরিবর্তন করে ‘ম্যালকম এক্স এভিনিউ’ রেখেছে তুরস্ক।

 

প্রকাশকঃ
মোঃ মামুনুর হাসান (টিপু)

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক:
খন্দকার আমিনুর রহমান

বার্তা সম্পাদকঃ
সোরওয়ার্দী মিয়া

৫০/এফ, ইনার সার্কুলার (ভিআইপি) রোড, নয়া পল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন: ০২-৯৩৩১৩৯৪, ৯৩৩১৩৯৫, নিউজ রুমঃ 015-35773314 - 013-18515080
ই-মেইল: khoborprotidin24.com@gmail.com

.::Developed by::.
Great IT

| সর্বশেষ |

মধুপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এতিমদের মাঝে মিষ্টি ও কেক বিতরণ *** নাসিরনগরে শেখ হাসিনার জন্ম বার্ষিকী পালিত *** নাসিরনগর উপজেলা বাইশটি কমিউনিটি ক্লিনিকে জুমের মাধ্যমে একযোগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন *** নাটোরের লালপুরে কৃষকদের মাঝে সার ও বীজ বিতরণ *** জগন্নাথপুরে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস ২০২০ উদযাপন লক্ষ্যে আলোচনা সভা *** রূপগঞ্জে সামাজিক সংগঠন  সোস্যাল ফাউন্ডেশনের সদেস্যদের প্রশাসন ও সাংবাদিকদের সাথে শুভেচ্ছা  বিনিময় *** নাটোরের বড়াগ্রামে নিষিদ্ধ যৌন উত্তেজক ড্রিংকস তৈরির কারখানায় পুলিশের অভিযান *** নবীনগর মেরকুটায় আহমদ শফী( রহঃ) ও সৈয়দ ফজলুল করীম পীর সাহেব (রহঃ) এদের জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ***